এটা কি হওয়া কাম্য; সচেতন সকলের হওয়া উচিত

এটা কি হওয়া কাম্য; সচেতন সকলের হওয়া উচিত

 

ভাস্কর চক্রবর্তী, শিলিগুড়ি, বেঙ্গল টুডেঃ আসবো আসবো করে এসে চলেও গেলো। আবার একটা বছরের অপেক্ষা। মা এলেন বাপের বাড়ি, কটাদিন মর্ত্যলোকে ধুমধাম করে কাটিয়ে আনন্দ করে সবাইকে কাঁদিয়ে ফিরে গেলেন কৈলাসে। মহাদেবের কাছে। এটাই তো রীতি আমাদের তাই না? ছোট থেকে বড় হয় যে মেয়ে তার বাবার বাড়িতে একটা সময়ের পর সেই বাপের বাড়িকে পর করেই চলে যেতে হয় অন্যের সংসারে। যথারীতি নিয়ম মেনে মা আমাদের পাড়ি দিয়েছেন কৈলাসে। বছরের এই পাঁচটা দিনের জন্য প্রত্যেক বাঙালি সারাবছর চাতকের মতো অপেক্ষা করে থাকেন। বিজয়ার দিন দেবীর বিসর্জনের পর খাঁ খাঁ করে পূজা মণ্ডপগুলো।

[espro-slider id=18951]

সবাই তো হৈ হুল্লোড়, মজা আনন্দ করলাম। কিন্তু যে স্থানে মণ্ডপ, ছোট ছোট স্টল গুলো দেওয়া হয় পূজার পর তার কিরূপ চেহারা হয় আমরা কখনো কি ভেবে দেখেছি। সারা মাঠে যত্রতত্র পড়ে থাকে প্লাস্টিকের গ্লাস, প্লেট, খাবারের উচ্ছিষ্ট ইত্যাদি। স্থানটি যেমন অপরিচ্ছন্ন থাকছে, আবার পরিবেশ দূষণও ঘটছে। পুজোর পর গোটা রাজ্যের প্রত্যেকটি জেলায় যত পুজো হয় তার আশেপাশের জায়গা গুলোর চিত্র একই। তারই এক ঝলক চোখে পড়ল শহর শিলিগুড়ির জনৈক পূজা প্রাঙ্গন। পুজো শেষ মাঠের চিত্র চোখে পড়ার মত। আমরা যদি সচেতন না হই আমাদেরকেই এর ফল ভোগ করতে হবে।

You May Share This
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.