বরানগরে মহিলাকে রাস্তায় ফেলে ধর্ষণের চেষ্টা, অভিযুক্ত অধরা

বরানগরে মহিলাকে রাস্তায় ফেলে ধর্ষণের চেষ্টা, অভিযুক্ত অধরা

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডে:

২৭ শে ফেব্রুয়ারি বরানগর থানার অন্তর্গত বনহুগলি মোড় এলাকায় ওষুধ কিনে স্বামীর সঙ্গে বাইকে চড়ে বাড়ি ফেরার পথে এক মহিলাকে প্রকাশ্য রাস্তায় শ্লীলতাহানি ও গণধর্ষণের চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ। তবে এখনো পর্যন্ত অভিযুক্তরা অধরা।

অভিযোগ, ২৭ তারিখ রাতে শাশুড়ির ওষুধ কেনার জন্য তিনি ও তাঁর স্বামী বনহুগলি গিয়েছিলেন। ফেরার পথে বরানগর এলাকার এক দুষ্কৃতী বিট্টু বোস ও তার দলবল বাইকে চড়ে এসে তাঁর স্বামীর বাইকটি ইচ্ছে করে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এরপর তাঁরা বাইক সহ রাস্তায় পড়ে গেলে স্বামীর সামনেই বিট্টু ও তার বন্ধুরা প্রকাশ্যে ওই মহিলাকে ধরে গণধর্ষণের চেষ্টা করে। তাঁর স্বামী দুষ্কৃতীদের বাধা দিতে গেলে তারা তাঁকে মারধর করার সঙ্গে সঙ্গে প্রাণনাশেরও চেষ্টা করে। বনহুগলি অঞ্চলের পথচলতি মানুষ বিষয়টি দেখে দুষ্কৃতীদের তাড়া করলে তারা পালিয়ে যায়। পালানোর সময় তাদের বিরুদ্ধে বরানগর থানায় অভিযোগ জানানো হবে বলে তিনি হুঁশিয়ারি দেন। তখন ওই দুষ্কৃতীরা ঘুরে এসে ফের চড়াও হয় তাঁর উপর। এমনকি ওড়না দিয়ে তাঁর গলায় ফাঁস দিয়ে খুনের চেষ্টাও করা হয় বলে অভিযোগ। কিন্তু, তাঁদের চিৎকারে স্থানীয় বাসিন্দারা ঘটনাস্থলে জড়ো হয়ে যাওয়ায় দুষ্কৃতীরা সকলে পালিয়ে যায়।

এছাড়া আরও বলেন, এই ঘটনার পূর্বে বিগত ২ মাস ধরে বিট্টু বোস তাঁকে বিরক্ত করছিল। এমনকি ঘটনার দিন রাতে ফের তাঁদের বাড়িতে চড়াও হয় বিট্টু ও তার দলবল। তারপর তাঁর শাশুড়িকে ছেলে ও বউমাকে খুন করা হবে বলে হুমকি দেয়। পুলিশকে সব ঘটনার কথা জানানো হলেও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি তারা। বর্তমানে তাঁরা আতঙ্ক রয়েছেন যে ফের দুষ্কৃতীরা হামলা চালাতে পারে ।

পুলিশি সুত্রে খবর, এই ঘটনার পর ২৮ শে ফেব্রুয়ারি নির্যাতিতা ও তাঁর স্বামী বরানগর থানায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন । কিন্তু, ওই ঘটনার পর ৭২ ঘণ্টা কেটে গেলেও কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এই গোটা ঘটনার তদন্ত করছেন বরানগর থানার পুলিশ।

You May Share This

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.