শান্তিপুরে প্রকাশ্যে মদ্যপানের প্রতিবাদে বাড়িতে হামলা ও মারধর

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

২ রা মার্চ রাতে শান্তিপুরের ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের বৈষ্ণবপাড়ায় বাড়ির সামনে বসে মদ্যপান করছিল একদল যুবক। এর জেরে প্রতিবাদ করেন এক ব্যক্তি। সেই রোষেই তাঁকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে আক্রমণ করে দুষ্কৃতীরা। অভিযোগ, বাড়িতে ঢুকে দুষ্কৃতীরা প্রতিবাদীর পরিবারের সদস্যদের মারধর করে। ধারাল অস্ত্র দিয়ে আক্রমণ চালায় একাধিক জনের উপর। তাদের হাত থেকে রেহাই পায়নি নাবালিকাও। আহত হয় মহিলা ও শিশু সহ বেশ কয়েকজন। এরপর স্থানীয়রাই আহতদের শান্তিপুর স্টেট জেনেরাল হাসপাতালে নিয়ে যান। তাদের মধ্যে একজনের শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে কল্যাণীর জওহরলাল নেহেরু মেমোরিয়াল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

সুত্রের খবর, ঘটনার দিন রাতে স্থানীয় বাসিন্দা সাধন করের বাড়ির সামনে বসে মদ্যপান করছিল একদল যুবক। সেখান থেকে ভেসে আসছিল চিৎকার, অশ্লীল কথাবার্তা। সহ্য করতে না পেরে প্রতিবাদ করেন সাধনবাবু। বাড়ি থেকে বেরিয়ে ওই যুবকদের সেখানে বসে মদ্যপান এবং অশালীন আচরণ করতে বারণ করেন। অভিযোগ, তখনই যুবকের দল সাধনবাবুর বাড়িতে চড়াও হয়। ধারাল অস্ত্র, লাঠি, রড ইত্যাদি দিয়ে বেদম মারধর করা হয় সাধনবাবুকে। বাধা দিতে আসেন সাধনবাবুর ভাই সহ পরিবারের অন্য সদস্যরা। তখন সাধনবাবুর দুই ভাইকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়। বছর আটেকের একটি মেয়েকেও মারধর করে দুষ্কৃতীরা। এরপর স্থানীয়রা বাসিন্দারাই আহতদের শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। তবে সাধন করের শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে কল্যাণীর জওহরলাল নেহেরু মেমোরিয়াল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। এই ঘটনায় শান্তিপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বর্তমানে শান্তিপুর থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন।

সম্পর্কিত সংবাদ