মহানগরে চালু হতে চলেছে ওয়াটার ট্যাক্সি

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডে:

 

ভেনিসের ধাঁচে এবার কলকাতায় চালু হতে চলেছে ওয়াটার ট্যাক্সি। শুধুমাত্র ভেনিস নয় লন্ডন, দুবাই, ব্যংককের মতো চালু হতে চলেছে ওয়াটার ট্যাক্সি। পূর্বেও ভেনিসের ধাঁচে ভাসমান বাজার পেয়েছে কলকাতা। এই ওয়াটার ট্যাক্সি দক্ষিণেশ্বর থেকে বেলুড় এবং মিলেনিয়াম পার্ক পর্যন্ত চলবে। এছাড়া আরও জানা যায়, সব কিছু ঠিক থাকলে আর কয়েক মাসের মধ্যে গঙ্গাবক্ষে চালু হতে যাচ্ছে ওয়াটার ট্যাক্সি। এমন কর্মকাণ্ডের প্রধান উদ্দেশ্য হল পর্যটকদের চোখে নতুন কলকাতাকে চেনানো। মূলত কলকাতাকে লন্ডন করার স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেইমতোই কলকাতার সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে তিনি মন দিয়েছিলেন ক্ষমতায় আসার পরই। তিলোত্তমা কলকাতাতে স্বপ্নসুন্দরী করে তুলতে নানা পরিকল্পনা গ্রহণ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। আর তাঁর পদাঙ্ক অনুকরণ করে পরিবহণ দফতর চালু করছে ওয়াটার ট্যাক্সি পরিষেবা। কলকাতায় গঙ্গাবক্ষে ওয়ার ট্যাক্সি চালু হবে আগামী তিনমাসের মধ্যেই।

পরিবহন দপ্তর সূত্রে খবর, ওয়াটার ট্যাক্সির অন্যতম উদ্দেশ্য যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্য। পাশাপাশি সুরক্ষার বিষয়টিও মাথায় রাখা হয়েছে। এর জেরেই জলযানের মধ্যে ৮টি আসন রাখা হয়েছে। এমনকি যাত্রীদের নিরাপত্তায় ট্যাক্সিতেই থাকবে লাইফ জ্যাকেট। প্রথম পর্যায়ে দুটি ট্যাক্সি আনা হচ্ছে। তবে তা শীতাতপনিয়ন্ত্রিত নয়। ওয়াটার ট্যাক্সির দাম পড়ছে প্রায় ১৪ লক্ষ টাকা। ওড়িশার একটি সংস্থার কাছ থেকে ওয়াটার ট্যাক্সিগুলি কিনেছে রাজ্য পরিবহণ দপ্তর। প্রাথমিকভাবে দক্ষিণেশ্বর থেকে বেলুড় রুটে যাতায়াত করবে ওয়াটার ট্যাক্সি। পড়ে তা জুড়বে বেলুড় থেকে মিলেনিয়াম পার্ক পর্যন্ত। ইতিমধ্যে দক্ষিণেশ্বর-বেলুড় রুটে পারাপারের জন্য ভুটভুটি পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। রামকৃষ্ণদেব, মা সারদা, স্বামী বিবেকানন্দর স্মৃতি বিজড়িত দুই পর্যটন ক্ষেত্রে এবার যাতায়াতের জন্য আসছে ওয়াটার ট্যাক্সি। তবে এই আরামদায়ক যাত্রার জন্যই টিকিট বা ভাড়ার বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

এছাড়া আরও জানা যায়, এই রুটে যাত্রীদের থেকে সাড়া পেলে পরবর্তীকালে রাজ্যের অন্যত্রও ওয়াটার ট্যাক্সি নামানো হবে। কারণ দক্ষিণেশ্বর এবং বেলুড় মঠে সারা বছর অসংখ্য মানুষ যাতায়াত করেন। তাদের কাছে এই ওয়াটার ট্যাক্সি আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠবে বলে মনে করা হচ্ছে। রাজ্যের অন্য নদীগুলিতেও চালু হবে এই জলযান। উল্লেখ্য দেশের মধ্যে একমাত্র বারাণসীতে এধরনের ওয়াটার ট্যাক্সি রয়েছে। উত্তর পূর্বের গুয়াহাটিতে এক বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে এমন জলযান চালানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

সম্পর্কিত সংবাদ