লিলুয়ায় কন্যা হত্যাকারীদের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ আদালতের

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

রাজীব মুখার্জী, হাওড়াঃ গতকাল নিজের কন্যা সন্তানকে হত্যার অপরাধে আজ সেই কন্যার বাবা, মা ও পরিবারের দাদু, দিদিমা এবং মামা কে আজ নিয়ে আসা হয় হাওড়া আদালতে। ধৃতদের নাম সঞ্জয় গুপ্তা (৪২) ও সঞ্চিতা গুপ্তা (৩৪)।

জানা গিয়েছে আদতে বিহারের বাসিন্দা সঞ্জয় লিলুয়ার আনন্দ নগরের ঘুঘু পাড়ায় কয়েকবছর আগে জমি কিনে বাড়ি করে আসে। শনিবার তাদের একটি কন্যা সন্তান হয়। কিন্তু সোমবার সকালে শ্মশানে সদ্যোজাত কন্যা সন্তানকে পুঁতে দেওয়া হয়েছে বলে জানতে পারে স্থানীয়রা। এরপর জিজ্ঞাসা করলে ওই দম্পতি মৃত অবস্থায় সন্তান প্রসব হয়েছে বলে জানায়। তবে স্থানীয়দের সন্দেহ হওয়ায় তারা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ওই দম্পতি সহ দাদু ও ঠাকুমাকে গতকালই আটক করলে পরে তাদের গ্রেফতার করে। এদিন ধৃতদের আদালতে তোলা হলে তাদের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন আদালত।

এদিনও ধৃতদের বক্তব্যে ধরা পড়ে অসঙ্গতি। কিভাবে শিশুটির মৃত্যু হল তা জানতে চাওয়া হলে মৃতের মা জানায়, কন্যা সন্তানের মৃত্যুর কারণ তার জানা নেই। হঠাৎই মারা যায় সে। অপরদিকে একই প্রশ্ন ওই কন্যা সন্তানের দাদুকে করা হলে তিনি জানান, রোগে ভুগছিল শিশুটি। সেই কারণেই মৃত্যু হয়েছে তার। পরস্পরের এই বিরোধী মন্তব্যে ধোঁয়াশা বাড়িয়েছে লিলুয়া ঘুঘুপড়ায় কন্যা সন্তান হত্যার ঘটনায়।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment