রোজভ্যালি কান্ডে গ্রেফতার প্রযোজক শ্রীকান্ত মোহতা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সমাপ্তি রায়, কলকাতাঃ অসুস্থতার কারণে শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মসের অন্যতম কর্ণধার শ্রীকান্ত মোহতাকে হেপাজতে চাইল না সিবিআই। আজ ভুবনেশ্বরে সিবিআই-র স্পেশাল আদালত শ্রীকান্ত মোহতাকে ১৪ দিনের জেল হেপাজতের নির্দেশ দেয়।

সিনেমা তৈরির জন্য রোজভ্যালির কাছ থেকে ৩০ কোটি টাকা নেওয়ার অভিযোগে গতকাল শ্রীকান্ত মোহতাকে গ্রেপ্তার করে সি বি আই। অভিযোগ, অতীতে শ্রীভেঙ্কটেশ ফিল্মসের সঙ্গে রোজ়ভ্যালির চুক্তি হয়। সেই চুক্তির ভিত্তিতেই ৩০ কোটি টাকা দেওয়া হয়। সেই টাকায় বেশ কয়েকটি সিনেমা তৈরির কথা হয়। সংখ্যাটা ২৫ বলে জানা গেছে। এছাড়াও রয়েছে ডিস্ট্রিবিউশনের ব্যবসা। রোজ়ভ্যালির ছবি ডিস্ট্রিবিউশন সংক্রান্ত কথাবার্তাও ওই চুক্তিতে ছিল বলে খবর। বিষয়টি নিয়ে সিবিআই-র কাছে অভিযোগ করেন গৌতম কুণ্ডু। তারপরই ডাকা হয় শ্রীকান্তকে। তখন শ্রীকান্ত জানান, তিনি চুক্তি থেকে বেরিয়ে এসেছেন। গৌতম কুণ্ডুর দেওয়া সব তথ্য সঠিক নয়।

সিবিআই সূত্রে আরও জানা গেছে, একটি এগজিবিশনে শ্রীকান্ত মোহতা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ৫টি ছবি কিনেছিলেন। সিবিআই শ্রীকান্তকে সেই ছবিগুলি জমা দিতে বলে। প্রথমটায় রাজি ছিলেন না। পরে সিবিআই তাঁকে কড়া ভাষায় লিখলে, তিনি ছবিগুলি জমা দেন। এরপর সিবিআই তাঁকে আরও বেশ কয়েকবার ডাকে। অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে শ্রীকান্ত এড়িয়ে যান সিবিআই-র সমন। সম্প্রতি বেশ কয়েকবার তাঁকে ডেকে পাঠানো হয় সি জি ও কমপ্লেক্সে। যাননি শ্রীকান্ত।

সূত্রের খবর রোজভ্যালি, ছবি ছাড়াও সারদা মামলাতেও জড়িয়ে ছিল তাঁর নাম। সারদার বেশ কয়েকটি ইভেন্টে টলিউড তারকাদের নিয়ে যাওয়া নিয়ে সুদীপ্ত সেনের কাছ থেকে টাকা নেন তিনি। জেরায় সুদীপ্ত সেন এই তথ্য দিয়েছিল সিবিআই-কে। সবমিলিয়ে পুরো বিষয়টা শ্রীকান্তর জন্য নেতিবাচক হয়েছে। সেই সূত্রেই গতকাল গ্রেপ্তার করা হয় শ্রীকান্ত মোহতাকে।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment