বাংলাদেশের কুমিল্লা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চালু হলো ভারতীয় ভিসাকেন্দ্র

বাংলাদেশের কুমিল্লা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চালু হলো ভারতীয় ভিসাকেন্দ্র

 

মিজান রহমান, ঢাকাঃ ভারতবর্ষ নিয়ে বাংলাদেশীদের মনে কৌতূহলের যেন কোনো কমতি নেই। প্রতিবেশী দেশ আর মুক্তিযুদ্ধের মিত্র হওয়ার কারণেই হয়তো এমনটা। ব্যবসা, চিকিৎসা ও অবকাশ যাপন সহ নানা কাজে প্রতিদিন ভিসা নিয়ে ভারতে যান অসংখ্য বাংলাদেশি। তাই দিন যতই যাচ্ছে দেশে বিদ্যমান ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রগুলোতে ভিসা প্রত্যাশীদের চাপও বাড়ছে তত। ঢাকা ও চট্টগ্রাম সহ দেশের অন্যান্য বিভাগীয় শহরে থাকা ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রেগুলোতে ভিসা প্রত্যাশীদের চাপ কমাতে বিভিন্ন জেলায় ভিসা আবেদন কেন্দ্র খুলছে ভারতীয় হাইকমিশন। এরই অংশ হিসেবে এবার দেশের পূর্বাঞ্চলের প্রবেশদ্বার খ্যাত কুমিল্লা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় খোলা হয়েছে ভারতীয় ভিসা আবেদনকেন্দ্র। কোনোরকম প্রচারণা কিংবা আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ব্যতীত রবিবার কুমিল্লায় যাত্রা শুরু করেছে ভারতীয় ভিসা সেন্টারের কার্যক্রম। কুমিল্লা মহানগরীর নজরুল এভিনিউ এলাকার কর ভবনের বিপরীতে গাঙচিল ভবনের দ্বিতীয় তলায় শুরু হয়েছে এ কার্যক্রম। নিচতলায় স্থাপন করা হয়েছে ইউক্যাশে ভিসার টাকা জমা দেয়ার বুথ।

ভিসা সেন্টারের সুপারভাইজার জাসেদ হোসেন জানান, আনুষ্ঠানিকভাবে এ সেন্টার কখন উদ্বোধন হবে তা ভারতীয় দূতাবাসই জানে। আপাতত আমরা কাজ শুরু করে দিয়েছি। তিনি আরো জানান, সপ্তাহের রোববার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ভিসা আবেদন গ্রহণ করা হবে এবং দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে পাসপোর্ট বিতরণ কার্যক্রম। আবেদন জমা দেয়ার ৭ কর্মদিবস পর পাসপোর্ট বিতরণ করা হবে বলেও তিনি জানান। এর আগে বৃহত্তর কুমিল্লার লোকজন চট্টগ্রাম কিংবা ঢাকায় গিয়ে ভারতীয় ভিসার আবেদন করত। এতে ছিল সীমাহীন ভোগান্তি। কুমিল্লায় ভিসা আবেদন কেন্দ্র চালুর মধ্য দিয়ে ভোগান্তি কমবে এ অঞ্চলের ভিসা প্রার্থীদের। তবে প্রথম দিনে ভিসা প্রার্থীদের ক্ষোভও ছিল অনেক। সংকীর্ণ সিঁড়িতে গাদাগাদি করে দাঁড়িয়ে থাকা, কাগজপত্র গ্রহণে ধীরগতি এবং ভিসা প্রার্থীদের জন্য টয়লেটের ব্যবস্থা না থাকা সহ বিভিন্ন অব্যবস্থাপনা নিরসনের দাবি ছিল সবার মুখে। এদিকে রবিবার থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার খৈয়াশার এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় নতুন এ ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বহুল কাঙ্ক্ষিত এ ভিসা আবেদন কেন্দ্রটি চালু হওয়ার মধ্য দিয়ে স্বস্তি ফিরছে এ এলাকার ভিসা প্রত্যাশীদের মনে। আগে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেট ভিসা আবেদন কেন্দ্রে গিয়ে আবেদন জমা দিতেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ভিসা প্রত্যাশীরা।

You May Share This
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.