বৃষ্টিতে জনজীবন বিপর্যস্ত, চড়ুইভাতির অনন্দে আবালবৃদ্ধবনিতা

Spread the love
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    9
    Shares

 

পল মৈত্র, দক্ষিন দিনাজপুরঃ শীতের শুরুতেই ঝিরঝিরে বৃষ্টির জেড়ে জনজীবন বিপর্যস্ত সারা রাজ্যের জুরে। এমনই সমস্যার সমক্ষিন দক্ষিণ দিনাজপুর প্রত্যেকটি জেলা। গত ২ দিন আগে হাওয়া অফিস থেকে জানানো হয় অন্ধপ্রদেশ, দীঘা সহ সমুদ্র ও নদী উপকূলবর্তী এলাকা গুলোতে আছরে পড়তে চলেছে ভয়া বহ ঘূর্ণিঝড় ফেতাই, এবং তারই রেশে সারা রাজ্য জুড়ে ভোগান্তি।

এই শীতের সময় ঠান্ডার শুরুতেই বৃষ্টি আরও বেশি করে শীতের জানান দিচ্ছে। বৃষ্টির সাথেই হাড় হিম করা ঠান্ডা হাওয়ার জেড়ে কাবু আবালবৃদ্ধবনিতা। এদিকে সারারাত থেকে ঝিরঝিরে বৃষ্টির জন্য রাস্তায় জল জমে স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশ তৈরি হয়েছে। রবিবার দুপুর থেকে শুরু হওয়া এই বৃষ্টির দরুন জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। এদিকে বৃষ্টি হওয়াতে সকলের মাথায় ছাতা যেমন উঠেছে তেমনি তার পাশাপাশি গায়ে উঠেছে ঠান্ডা থেকে বাঁচার জন্য গরম পোশাক আবার কেউ কেউ বৃষ্টি থেকে বাঁচার জন্য এই গরম পোশাকের উপরেও রেইনকোট পড়ছে, এমনই দৃশ্য দেখা গেল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুরে। সকাল থেকেই বাসস্ট্যান্ডে বাস গুলো সারি বদ্ধভাবে দাঁড়িয়েছিল। যাত্রী কম থাকায় টোটো অটো ও বাস মালিকরা লাভের মুখ কম দেখছেন বলে জানান।

পাশাপাশি এদিন বিভিন্ন দোকানপাটও বন্ধ ছিল। স্কুল কলেজ ও সরকারি চাকুরিজীবীরা বৃষ্টিতে কাক ভেজা হয়ে বাসের জন্য অপেক্ষা করলেও বৃষ্টির কারনে বাস কম থাকায় প্রবল ভিড়ে ঠেলাঠেলি করে বাদুড়ঝোলা হয়ে প্রায় ভিজতে ভিজতে কর্মস্থলে পৌঁছাতে হচ্ছে। এ বিষয়ে গঙ্গারামপুরের এক স্কুল শিক্ষক বলেন, গত দুদিন আগে শীত পড়লেও রবিবার থেকে বৃষ্টি শুরু হওয়াতে আরও বেশি ভাবে শীতের শুরু হল, তার সাথেই বিরক্তিকর নিম্নচাপের বৃষ্টি যার জেরে মানুষ ভীষণ ভাবে বিপর্যস্ত হচ্ছে।

বৃষ্টির সাথে ঠান্ডা আবহাওয়া শীতের জানান দিচ্ছে, অপরদিকে কলকাতা কেন্দ্রিক জায়গায় হারহিম করা ঠাণ্ডা না থাকলেও ডাউনের জেলা গুলিতে ব্যাপক ঠাণ্ডা পরেছে। অন্যদিকে, নিম্নচাপ বৃষ্টির জেরে চাষের জমি সহ শাকসবজির ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে বলে জানান জেলার একাংশ কৃষকরা, তারা জানান শীতের যে ফলন গুলো অর্থাৎ সর্ষেফুল থেকে শুরু করে ধান গম এই বৃষ্টির জেরে ক্ষতির মুখে পড়ছে। যার জেরে এবার তারা খুব একটা লাভবান হবেন না বলে আশংঙ্কা করছেন

প্রকৃতির এই লীলা কবে বন্ধ হবে কেউ জানেনা তাই পাশাপাশি শীতের দিনে যেভাবে বৃষ্টির সাথে ঠান্ডা হিমেল হাওয়া জানান দিচ্ছে শীত প্রেমিরা এই আবহাওয়া কে উপেক্ষা করে স্কুল, অফিস, কলেজ, ব্যবসাপত্র বন্ধ করে মজে উঠেছে চড়ুইভাতির অনন্দে। চড়ুইভাতির মেনুও বেশ লোভনীয় ও সুস্বাদু বললেই চলে। খিচুড়ি, পাপড় ভাজা, বেগুনি, চাটনি ও কচি পাঁঠার মাংস স্বাদেই অনেকে এই ঠাণ্ডা কে উপভোগ করছে, আর সাথে রয়েছে খেজুরের গুড়ের মিষ্টির।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment