মোবাইল টাওয়ার বসানোর নাম করে কয়েকশো কোটি টাকা প্রতারণা, ধৃত ৩ মাস্টার মাইন্ড

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

অর্ণব মৈত্র, বিধাননগরঃ বিগত ১৬ই আগষ্ট বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানায় একটি নাম করা মোবাইল নেটওয়ার্ক কোম্পানির পক্ষ থেকে অভিযোগ জানানো হয় যে বেশ কিছু ব্যক্তি সেই মোবাইল সংস্থার টাওয়ার বসানোর নাম করে সাধারণ মানুষের থেকে কয়েকশো কোটি টাকা প্রতারণা করছে। আর সেই অভিযোগের ভিত্তিতে বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করলে ১১ জনকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সম্প্রতি এই ঘটনার সাথে যুক্ত আরও ৩ জনের নাম উঠে আসে। ৪ঠা ডিসেম্বর বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ এই ৩জন মাস্টার মাইন্ডকে গ্রেফতার করে। ধৃতদের নাম অভিজিৎ বিষ্ণু, প্রিয়াঙ্কা কর এবং সুজাতা সাধু। ধৃতদের আজ বিধাননগর মহকুমা আদালতে তোলা হবে।

পুলিশি সুত্রে খবর, ১৬ই আগষ্ট ঘটনার অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে ২৫শে আগষ্ট এবং তারা এই ঘটনার সাথে যুক্ত ৯ জনকে গ্রেফতার করে। পরবর্তীতে সেপ্টেম্বর মাসে এই ঘটনার সাথে যুক্ত আরো ২ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ফের এই বিষয়ে জিজ্ঞেসাবাদ করলে সম্প্রতি আরো ৩ জন মাস্টার মাইন্ডের নাম উঠে আসে পুলিশের কাছে।

এরপরেই পুলিশ তদন্ত শুরু করে জানতে পারে বর্তমানে এই ৩ জন হাবড়াতে একটি ভুয়ো সংস্থার অফিস খুলে মানুষদের টাওয়ার বসানোর নাম করে ফোন করতো এবং তার সাথে কম সুদে লোন করিয়ে দেওয়ার টোপ দিয়ে তাদের থেকে বিভিন্ন ভাবে কয়েকশো কোটি টাকা প্রতারণার মাস্টার প্ল্যান তৈরি করেছে। ধৃত ৩ মাস্টার মাইন্ডের নাম

অভিজিৎ বিষ্ণু রিজেন্ট পার্ক থানার বাসিন্দা, প্রিয়াঙ্কা কর নিমতার বাসিন্দা এবং সুজাতা সাধু। মূলত এই তথ্যের ভিত্তিতেই ৪ঠা ডিসেম্বর এই তিনজনকে গ্রেফতার করে বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ। আজ এদের বিধাননগর মহকুমা আদালতে তোলা হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment