29 C
Kolkata
Tuesday, July 16, 2024
spot_img

বাংলাদেশে নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দের আগেই লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড হবে: ইসি

 

মিজান রহমান, ঢাকাঃ নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়ার আগেই সবার জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড হবে। আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে ২১শে নভেম্বর বুধবার দুপুরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ইসি সচিব বলেন, 'বৃহস্পতিবার আমরা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিশেষ বৈঠকে বসবো। সভা থেকে নির্বাচনের আগে-পরে ও ভোটের দিনের পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠু রাখতে বিভিন্ন নির্দেশনা দেওয়া হবে। এছাড়া, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার অভিযান জোরদার করা, সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, নারী ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে যাওয়া নির্বিঘ্ন করা, রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং অফিসারদের নিরাপত্তা, নির্বাচনি সামগ্রী কেন্দ্রে পৌঁছানোর নিরাপত্তা, নির্বাহী ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটদের নিরাপত্তায় পুলিশি পাহারা দেওয়া, নির্বাচনের আগে, ভোটের দিন ও ভোট পরবর্তী সময়ের সার্বিক পরিবেশ শান্তিপূর্ণ রাখার বিষয়গুলো নিয়েও বিশেষ সভায় নির্দেশনা থাকবে।'

ইসি সচিব বলেন, 'বিশেষ সভা থেকে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এর মধ্যে রয়েছে— নির্বাচনপূর্ব শান্তিপূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টিতে করণীয় স্থির করা, নির্বাচনি আইনের বিধান প্রতিপালনের পরিবেশ তৈরি করা, নির্বাচনের দিন ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তার পরিকল্পনা তৈরি করা। যাতে সব প্রার্থী প্রচার-প্রচারণায় সমান সুযোগ পান। এছাড়া, নির্বাচনের আচরণ বিধিমালা প্রতিপালনে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা যাতে নির্বিঘ্নে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করতে পারেন, সেজন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক পুলিশ সদস্য নিয়োগ করা হবে।'

বিএনপির তরফে দাখিল করা অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, 'আমরা সবই কমিশনের নজরে এনেছি। বিএনপি বুধবার যে চিঠি দিয়েছে সেটি নিয়ে কালকের কমিশন সভায় আলোচনা হবে। এ বিষয়ে পরবর্তীতে জানানো হবে।' নতুন করে বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার বা হয়রানি না করতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের নির্দেশ দেবেন কিনা, প্রশ্নে সচিব বলেন, 'এ ধরনের কিছু নির্দেশনা দেওয়া হবে।'

ধর্মীয় সভা আয়োজনে বাধ্যবাধকতা আরোপের বিষয়ে সচিব বলেন, 'ধর্মীয় সভা পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা হয়নি। আবেদন পাওয়া সাপেক্ষে রিটার্নিং অফিসার পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে সভার অনুমোদন দিতে পারেন। তবে ধর্মীয় সভায় কোনও রাজনৈতিক বক্তব্য রাখা যাবে না। এ ধরনের সভায় ম্যাজিস্ট্রেট উপস্থিত থাকবেন।' ইসি সচিব বলেন, 'আমরা রিটার্নিং অফিসারদের নির্দেশনা দিয়েছি, কোনোভাবেই কোনও দলীয় ব্যক্তিকে যেন তারা প্রিজাইডিং অফিসার হিসাবে নিয়োগ না দেন।'

Related Articles

Stay Connected

17,141FansLike
3,912FollowersFollow
21,000SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

Latest Articles