মুখোমুখি সংঘর্ষ দুটি গাড়ির, মুহূর্তে বিস্ফোরণ ও অগ্নিকান্ডে পুড়ে ছাই

মুখোমুখি সংঘর্ষ দুটি গাড়ির, মুহূর্তে বিস্ফোরণ ও অগ্নিকান্ডে পুড়ে ছাই

 

রাজীব মুখার্জী, গড়ফা, হাওড়াঃ ভোরের দিকে ইদানিং বেশ শীত শীত ভাব। গায়ের চাদরটা ভালো করে জড়িয়ে বাথরুম থেকে ফেরত এসে আবার বিছানার উষ্ণতা গায়ে মেখে ঘুমের দেশে যাওয়ার আগের মুহূর্তেই তালটা কাটলো শম্ভু দাসের। ঘড়ির কাঁটায় তখন ৩:৩০ মিনিট, প্রচন্ড আওয়াজে কেঁপে উঠলো ঘরের জানলার কাঁচ। ঘরের অন্যান্য সামগ্রী। ঘুম চোখে মনে করলেন বোধহয় হয় ভূমিকম্প। দৌড়ে ঘর থেকে বেরিয়ে আসে গড়ফার ১২ নম্বর বাসিন্দা শম্ভু দাস ও তাঁর পরিবার। চোখে মুখে আতঙ্কের ছাপ। বেরিয়ে যা দেখলেন সেটা আরো ভয়ঙ্কর। কুয়াশা আচ্ছন্ন কোনায় এক্সপ্রেসওয়ে দেখে মনে হচ্ছে আগুনের ভাটি। দাউ দাউ করে জ্বলছে বাড়ির সামনের সব কিছু। হাই রোডে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে একটি তেলের ট্যাংকার ও একটি ট্রলার। বিপরীত মুখ থেকে আসা দুটো গাড়ির সরাসরি দুর্ঘটনা ও তাঁর পরেই তেলের ট্যাংকারে বিস্ফোরণ। দাউ দাউ করে জ্বলছে আগুন। আগুনের তীব্রতা এতটাই যে কোনায় এক্সপ্রেসওয়ে ছাড়িয়ে সেই আগুন পৌঁছে গেছে পাশের ১২ নম্বরে এই বসতির মানুষের কাছে। আগুনের তাপ গায়ে লাগছে ভয়ে তারা ছুটে পালিয়ে যায় লাইন পারের দিকে। মুহূর্তে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে রাস্তার ধারে ঝোপ, কলাগাছ ও বেশ কয়েকটি গাছ। ঊনষানি ট্রাফিকে ডিউটিরত পুলিশ বুথটিও ক্ষতিগ্রস্ত।

[espro-slider id=14908]

জগাছা থানার প্রদীপ বাবু জানান, “ট্রাফিকে ডিউটিরত হাওড়া সিটি পুলিশের চাঁদু সর্দারকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় হাওড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁর অবস্থা যথেষ্ট আশঙ্কাজনক। ঘটনাস্থলেই মারার যায় দুই গাড়ির চালক। সংঘর্ষের পড়েই বিস্ফোরণের আগুনে অগ্নিদগ্ধ হয়েই মারার যান তারা ঘটনাস্থলেই।” এলাকার বেশ কিছু মানুষও আহত হয়েছেন এই দুর্ঘটনার অগ্নিকান্ডেই জানালেন শম্ভু দাস। দুর্ঘটনার খবর জানানো হয় দমকলে। অল্প কিছুক্ষন বাদেই ছুটে আসে দমকলের ৬টি ইঞ্জিন। ঘন্টাখানেকের চেষ্টায় আগুন নেভানো সম্ভব হয়। ঘটনাস্থলে ছুটে আসে জগাছা থানার পুলিশ ও হাওড়া সিটি পুলিশের অধিকারিকেরাও। ভোর রাতের এই ভয়াবহ সংঘর্ষে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে রেল পরিষেবা।

রেল সূত্রের খবর, সংঘর্ষের বিস্ফোরণের জেরে রেলের ওভারহেড তার অব্দি ছিঁড়ে যায়। সকালের দুটি আমতা লোকাল বাতিল করা হয়েছে। দুর্ঘটনার জেরে এখনও ২ নম্বর ও ৬ নম্বর জাতীয় সড়কে, কোনায় এক্সপ্রেসওয়েতে যান চলাচল বিপর্যস্ত। দিল্লি ও বোম্বে রোডের সংযোগস্থলে কোনায় এক্সপ্রেসওয়েতে এই দুর্ঘটনার জেরে গাড়ির লম্বা লাইন এখনও অব্দি। এলাকায় যথেষ্ট উত্তেজনা ও আতঙ্কের পরিবেশ এই মুহূর্তেও।

You May Share This
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *