তৃণমূলের দক্ষিণ চক্রের যুব সভাপতির উপর দুষ্কৃতী হামলার প্রতিবাদে আন্দোলন তৃণমূল সমর্থিতদের

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

অর্ণব মৈত্র, হিঙ্গলগঞ্জঃ তৃণমূলের বসিরহাট মহকুমার হিঙ্গলগঞ্জ দক্ষিণ চক্রের যুব সভাপতি জ্যোতিপ্রকাশ চক্রবর্তীর উপরে দুষ্কৃতী হামলার প্রতিবাদে ২০ শে নভেম্বর হিঙ্গলগঞ্জের যোগেশগঞ্জ বাজার বন্ধ করে দিয়ে আন্দোলনে নামে তৃণমূল সমর্থিতরা। এদিন সকাল থেকে ১২ টা পর্যন্ত বন্ধ থাকে বাজার ঘাট ও গাড়ি চলাচল। যদিও পরে ১২টা নাগাদ পুলিশের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় আন্দোলনকারীরা।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, সোমবার দুপুর দেড়টা নাগাদ হিঙ্গলগঞ্জ কলেজে কর্মরত অবস্থায় ছিলেন জ্যোতিপ্রকাশবাবু। সে সময় স্টাফ রুম থেকে কলেজের এক ছাত্রকে দিয়ে বাইরে ডেকে আনা হয় তাকে। কলেজের গেটে আসতেই অতর্কিতে তার উপরে ৩ দুষ্কৃতী হামলা করে বলে অভিযোগ। এমনকি বেধড়ক মারধরও করা হয় যুব নেতাকে। পরে তার চিৎকার শুনে স্থানীয় বাসিন্দারা ছুটে আসলে একটি মোটর বাইকে করে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। যদিও ঘটনার বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়ে হিঙ্গলগঞ্জ থানায় সোমবারই লিখিত অভিযোগ জানান তিনি।

অপরদিকে যুবনেতার উপরে হামলার কথা ছড়িয়ে পড়তেই উত্তেজিত হয়ে ওঠেন তৃণমূল সমর্থিতরা। রাত থেকেই চলে প্রতিবাদ কর্মসূচি। এই হামলার ঘটনার পিছনে স্থানীয় দুষ্কৃতীদের হাত রয়েছে বলেও অভিযোগ তুলে আক্রান্ত জ্যোতিপ্রকাশ চক্রবর্তী বলেন, “দলীয় কর্মসূচি অনুযায়ী দুদিন আগেই যোগেশ বাজারে একটি সভার আয়োজন করেছিলাম আমি। কেন ওই সভা করেছি তার জবাব নিতে আমার উপরে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। দলের মধ্যে আমি স্বাধীনভাবে কাজ করি এটা মেনে নিতে না পেরে আমার উপরে হামলা হতে পারে বলে অনুমান করছি”।

অন্যদিকে যুবনেতার উপরে হামলার ঘটনায় দলীয় কোন্দলের কথা উড়িয়ে দিয়ে হিঙ্গলগঞ্জ ব্লক সভাপতি তৃণমূলের শহিদুল গাজী বলেন, “হামলার বিষয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে। পুরো বিষয়টাই পুলিশ তদন্ত করে দেখছে”।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment