‘ধনুষ’এর সক্ষম উৎক্ষেপণ করল ভারত

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

চিন-পাকিস্তানকে টেক্কা দিয়ে প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে আরও একধাপ এগিয়ে গেল ভারত। ২৩ শে ফেব্রুয়ারি ওড়িশার উপকূলে নৌবাহিনীর রণতরী থেকে পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম ‘ধনুষ’ ব্যালিস্টিক মিসাইলের সফল পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করা হয়। আর এই মিসাইলটি এদিন সকাল ১০.৫০ মিনিটে পারাদ্বীপের কাছে নৌবাহিনীর স্ট্র্যাটেজিক ফোর্স কম্যান্ড উৎক্ষেপণ করেন।

সুত্রের খবর, সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি হয় ‘ধনুষ’। মূলত এই মিসাইলটি নৌবাহিনীর জন্য তৈরি ‘পৃথ্বী’ ক্ষেপণাস্ত্রেরই একটি নয়া সংস্করণ। প্রায় ৫০০ কিলোগ্রাম পর্যন্ত বোমা বহন করতে সক্ষম ‘ধনুষ’। অপরদিকে সেনাবাহিনী সুত্রে জানা যায়, ইন্টিগ্রেটেড গাইডেড মিলাইল ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের আওতায় ডিআরডিও যে পাঁচটি ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করেছে, তার অন্যতম হল ‘ধনুষ’। ইতিমধ্যেই সেনাবাহিনীর অস্ত্রভাণ্ডারে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে ক্ষেপণাস্ত্রটি। এমনকি এর আগেও ২০১৫ সালের ৯ ই এপ্রিল এই ক্ষেপণাস্ত্র শেষবার পরীক্ষা করা হয়।

উল্লেখ্য, জানুয়ারি মাসেই “ইন্টার কন্টিনেন্টাল ব্যালিস্টিক মিসাইল” অগ্নি-৫-এর পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করে ভারত। অগ্নি-৫ নিউক্লিয়ার বোমা বহনে সক্ষম আন্তর্মহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম)। চিনা আগ্রাসনের কথা মাথায় রেখেই এই ক্ষেপণাস্ত্রটির পাল্লা বাড়িয়ে একে আরও ভয়াবহ করে তোলা হয়েছে। এই মিসাইলটি প্রাথমিকভাবে ৫০০০ কিলোমিটার পর্যন্ত হামলা চালাতে সক্ষম। যদিও বেজিংকেও নিশানার মধ্যে এনে ফেলেছে ডিআরডিও-র এই ব্রেন-চাইল্ড। প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের দাবি, এবার ধনুষের সফল পরীক্ষা চিনের রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছে৷ সংঘাত বাঁধলে ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাছ থেকে প্রবল প্রত্যাঘাত আসবে বলেই মনে করছে লালফৌজ।

সম্পর্কিত সংবাদ