ছুটির পরও বন্ধ বসিরহাটের হোম, চিন্তায় আবাসিকরা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

অর্ণব মৈত্র, বসিরহাটঃ গত মাসের প্রথম দিকে বসিরহাটের ধান্যকুড়িয়া বালিকা রাষ্ট্রীয় কল্যাণ আলয় বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলে আন্দোলনে নেমেছিল হোমের আবাসিকরা। হোম সংস্কারের নামে আবাসিকদের অন্যত্র স্থানান্তরিত করে ওই জায়গায় পর্যটন আবাস করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ ওঠে আবাসিকদের পক্ষ থেকে। কিন্তু আবাসিকদের আন্দোলনের মুখে সে যাত্রায় ভেস্তে যায় কর্তৃপক্ষের চক্রান্ত।

আর তারপরই পুজোর ছুটিতে চতুর্থী থেকে বাড়ি পাঠানো হয়েছিল আবাসিকের ছাত্রীদের। শনিবার সেই ছুটির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার ফলে রবিবার থেকেই হোমে ফিরতে শুরু করে মেয়েরা। কিন্তু ওই দিন দূর-দূরান্ত থেকে ফিরেও হোমে ঢুকতে পারলো না মেয়েরা। দিনভর রাস্তায় বসে থাকতে হয় তাদের। পুলিশ পাহাড়ার ফলে হোমে ঢুকে বিপাকে পড়তে হয় আবাসিকার ছাত্রীদের। এই অবস্থায় আশ্রয়হীন হয়ে অনেক রাত পর্যন্ত রাস্তায় বসে থাকার পরে কয়েকজন ফিরে গেলেও, দূর থেকে আসা আবাসিকরা থেকে যায় স্থানীয় বাসিন্দাদের আশ্রয়ে।

কল্যানী থেকে আসা এক মাধ্যমিকের ছাত্রী জানায়, ‘সামনেই মাধ্যমিক পরীক্ষা। বই ও সমস্ত পড়ার সামগ্রী হোমের ঘরে থাকলেও আমাদের ঘরে ঢুকতে দিচ্ছে না। আমাদের বাড়ি পাঠিয়ে আর হোমে ঢুকতে দিচ্ছে না’। এমনকি আবাসিকদের অভিভাবকদের পক্ষ থেকে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাদের অন্য হোমের ঠিকানা দেওয়া হয় বলে জানা যায় আবাসিকদের তরফ থেকে। তবে এ বিষয়ে কথা বলতে যোগাযোগ করা হলে কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment