কালীপুজোকে ইন্দ্র করে পুলিশ-জনতা সংঘর্ষ, ইটবৃষ্টি, ধৃত ৪

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

জয় চক্রবর্তী, বনগাঁঃ  জোর করে কালীপুজো করাকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলো বাগদা থানার নাটাবেড়িয়া এলাকায়৷ ৫ই নভেম্বর রাতে ওই ঘটনায় তিনজন পুলিশকর্মী জখম হয়েছেন। পরে পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশকে লাঠি চার্জ ও কাঁদানে গ্যাস ছুড়তে হয় ৷ বর্তমানে এলাকায় উত্তেজনা থাকায় পুলিশি টহল চলছে৷ এই ঘটনার জেরেই ৭ই নভেম্বর রাতে জোর তল্লাশি চালিয়ে ৪ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ ৷ তাদের নাম স্বরূপ সর্দার, তপন বিশ্বাস, সুব্রত মন্ডল, সুজয় অধিকারী। এদের বাড়ি বাগদা থানার গাদপুকুরিয়া ও নাটাবেড়িয়া এলাকায় ৷

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জোড়াপোতা এলাকায় পুলিশ কালীপুজোর অনুমতি দেয়নি, গ্রামবাসীরাও কোন অনুমতি চাননি পুলিশের কাছে। মঙ্গলবার রাত ৯ টা নাগাদ গ্রামের লোকজন নাটাবেড়িয়া থেকে জোড়াপোতার দিকে প্রতিমা নিয়ে শোভাযাত্রা করে রওনা দেন৷ নাটাবেড়িয়া মরে পুলিশ তাদের আটকায় ৷ এরপর গ্রামের লোকেরা জোর করে নিয়ে যেতে গেলে পুলিশ ও জনতার মধ্যে মারপিট বেঁধে যায় ৷

অভিযোগ, বাঁশ, লাঠি, পাথর নিয়ে পুলিশের উপর চড়াও হয় উত্তেজিত জনতা৷ ক্ষিপ্ত জনতা পুলিশকে উদ্দেশ্য করে ঢিল ছুরতে থাকে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ পাল্টা লাঠিচার্জ ও কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। গ্রামবাসীদের দাবি পুলিশ তাদের মারে ও কয়েকজন জখমও হয়েছে৷

এ বিষয়ে বনগাঁ মহকুমার পুলিশ আধিকারিক অনিল রায় বলেন, অনুমতি ছাড়া পুজো করার চেষ্টা করছিল৷ আমরা বাঁধা দিলে ওরা হামলা চালায়৷ বাকি অভিযুক্তদের খোঁজ চলছে৷

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment