বসিরহাটে ইঞ্জিনভ্যানের চাকায় পিষ্ট এক যুবক, গ্রেফতার অভিযুক্ত

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

অর্ণব মৈত্র, বসিরহাটঃ ৩রা নভেম্বর বসিরহাট মির্জাপুরে ইঞ্জিনভ্যানের চাকায় পিষ্ট এক যুবক। মৃতের নাম পাপ্পু দাস। বাড়ি বসিরহাট মির্জাপুরে। পেশায় রাজমিস্ত্রির জোগাড়ে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন সন্ধ্যাবেলায় পাপ্পু দাসের মা কল্পনা দাস ছেলেকে মাংস আনতে বাজারে পাঠান। এরপর সাইকেল নিয়ে মাংস আনতে যাওয়ার সময় মৈত্রবাগান এলাকায় টাকি রাস্তার পিছন থেকে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি পাটবোঝাই ইঞ্জিন ভ্যান এসে ধাক্কা মারে পাপ্পুর সাইকেলে। সাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে গেলে পাপ্পুর বুকের উপর দিয়ে চলে যায় ইঞ্জিনভ্যানের চাকা। গুরুতর জখম অবস্থায় পাপ্পুকে একটি অটোরিকশা করে হাসপাতালের উদ্দেশ্যে নিয়ে যায় ওই ইঞ্জিন ভ্যানের চালক রাশেদ গাজী। খবর পেয়ে পাপ্পুর বাড়ির লোক ও প্রতিবেশীরা হাসপাতালে গিয়ে পাপ্পুকে না পেয়ে খবর দেয় বসিরহাট থানার পুলিশকে। এরপর ঘটনার প্রায় এক ঘন্টা পরে বসিরহাট মেরুদন্ডী এলাকা থেকে উদ্ধার হয় পাপ্পুর মৃতদেহটি।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, এই ঘটনায় ইঞ্জিন ভ্যানের চালক পাপ্পুর মৃতদেহটি লোপাট করার চেষ্টা করেছিল। দুর্ঘটনার পরে জখম অবস্থায় তাকে হাসপাতালে না নিয়ে গিয়ে পাপ্পুকে নিয়ে নিজের বাড়ি মেরুদন্ডী চলে যায় ইঞ্জিন ভ্যানের চালক রাশেদ গাজি। পরে ইঞ্জিন ভ্যানে লেখা মোবাইল নম্বর ফোন করলে বিষয়টি জানতে পারেন প্রতিবেশীরা। এমনকি সময় মতো পাপ্পুকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার মৃত্যু আটকানো যেত বলে দাবি প্রতিবেশীদের। অপরদিকে পাপ্পুর মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে রাতেই রাশেদ গাজীকে গ্রেফতার করে বসিরহাট থানার পুলিশ। অভিযুক্তকে ৪ ঠা নভেম্বর রবিবার বসিরহাট মহকুমা আদালতে তোলা হবে বলে জানা গিয়েছে।

সম্পর্কিত সংবাদ