নর্মদা নদীতে স্ট্যাচু অফ ইউনিটি, রেকর্ড ভাঙবেন মোদী নিজেই

নর্মদা নদীতে স্ট্যাচু অফ ইউনিটি, রেকর্ড ভাঙবেন মোদী নিজেই

 

ওয়েব ডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ  বিশ্বের উচ্চতম সেতু ‘স্ট্যাচু অফ ইউনিটি’ বানিয়ে বিশ্ববাসীকে চমকে দিয়েছেন মোদী। চমক এখানেই শেষ নয়। ২০২১ সালে মোদীই এই রেকর্ড ভাঙতে চলেছে এদেশেই। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে নর্মদা নদীর তীরে সর্দার বল্লভভাই পটেলের মূর্তিকে ছাপিয়ে যাবে শিবাজির মূর্তি। মাত্র তিন বছরের জন্যই বিশ্বের উচ্চতম মূর্তির অধিকার থাকছে ‘স্ট্যাচু অফ ইউনিটি’-র।

৪৮ ঘণ্টা আগেই প্রধানমন্ত্রী মোদী যে মূর্তি উন্মোচন করেছিলেন কেভাদিয়া শহরে, তাঁর উচ্চতা ছিল ১৮২ মিটার। চিনের স্প্রিং টেম্পল বুদ্ধমূর্তির থেকে ২৩ ফুট বেশি উঁচু। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘স্ট্যাচু অফ লিবার্টি’-র (৯৩ মিটার) প্রায় দ্বিগুণ উচ্চতা মোদীর রাজ্যের মূর্তির।

তবে সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে মহারাষ্ট্র সরকার ছত্রপতি শিবাজির যে মূর্তি তৈরি করার পরিকল্পনা করেছে তাতে ম্লান হয়ে যাবে বিশ্বের অন্যান্য সমস্ত মূর্তি। আরব সাগরের মাঝখানে বানানো হবে ২১২ মিটারের বিশালাকায় শিবাজির মূর্তি। এমনটাই খবর সর্বভারতীয় এক হিন্দি প্রচারমাধ্যমের।

বল্লভভাই পটেলের মূর্তি তৈরিতে খরচ হয়েছিল ২৩০০ কোটি টাকা, যা নিয়ে ইতিমধ্যেই একপ্রস্থ প্রশ্ন উঠে এসেছে মূর্তি বানানোর যৌক্তিকতা নিয়ে। তবে শিবাজির মূর্তির আনুমানিক খরচ থাকছে ৩৮০০ কোটি।

প্রসঙ্গত, দুই মূর্তি তৈরির প্রাথমিক ভিত্তিপ্রস্থর করেছিলেন স্বয়ং মোদী। ২০১৩ সালের ৩১ অক্টোবর শিল্যান্যাস করা হয়েছিল বল্লভভাই পটেলের মূর্তির। অন্যদিকে, শিবাজির মূর্তির শিল্যান্যাস করা হয় দু’বছর আগে ডিসেম্বরের ২৪ তারিখে।

You May Share This
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *