খাদ্যে বিষক্রিয়া, অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ২৮

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

জয় চক্রবর্তী, গাইঘাটাঃ পেটে ব্যাথা, বমি, পাতলা পায়খানা, জ্বর উপসর্গ নিয়ে অসুস্থ হয়ে চাঁদপড়া ব্লক স্বাস্থ কেন্দ্রে ভর্তি হল মহিলা ও শিশু সহ ২৮ জন গ্রামের মানুষ৷ ঘটনাটি ঘটেছে গাইঘাটা থানার জামদানি গ্রামে৷ চিকিৎসকদের অনুমান খাদ্যে বিষক্রিয়া জনিত কারণে এই ঘটনা ঘটেছে। গুরুত্বর অসুস্থ হওয়ায় এক ব্যাক্তিকে বারাসাত মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ২৭শে অক্টোবর, শনিবার দুপুর থেকে এলাকায় একটি মেডিকেল ক্যাম্প বসিয়েছে ব্লক স্বাস্থ দফতর। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, লক্ষী পুজোর দিন রাতে প্রসাদ খাবার পর দিন সকাল থেকেই গ্রামের কয়েক জন অসুস্থতা অনুভব করে। তারা ডাক্তার দেখিয়ে ওষুধ খান। কিন্তু বেলা বাড়ার সাথে সাথে আর কিছু ব্যাক্তির মল ও বমি শুরু হয়। রাতে কয়েক জন মহিলাকে ঠাকুর নগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার সকাল থেকে শনিবার সকাল পর্যন্ত জামদানি গ্রামের থেকে প্রায় ২০ জন এসে ভর্তি হয়। অনেকেই বহির বিভাগে চিকিৎসা করিয়ে চলে গিয়েছেন। দুপুর পর্যন্ত স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি ছিলেন সুস্মিতা ঘোষ, দুলু রানি ঘোষ, ইন্দ্রজিৎ ঘোষ সহ ২৮ জন ব্যাক্তি। অসুস্থ ইন্দ্রজিৎ ঘোষ বলেন, লক্ষ্মী পুজোর রাতে গ্রামের অনেক বাড়িতে গিয়ে প্রসাদ খাওয়ার পর বৃহস্পতিবার থেকে পেটেব্যাথা, বমি শুরু হয়। স্থানীয় ডাক্তার দেখিরে জর, বমি না কমায় বাধ্য হয়ে হাসপাতালে চলে আসি৷ একই কারণে হাসপাতালে এসেছেন বলেন অন্যরাও।

ব্লক স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে ২৮শে অক্টোবর জামদানি বোস পাড়া চৈতালি সঙ্ঘ ক্লাবে একটি অস্থায়ী ক্যাম্প শুরু করেছেন৷ স্বাস্থ কর্মীরা গ্রামের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খোঁজ খবর নিচ্ছে এই ঘটনার বিষয় বস্তু জানবার জন্য ৷ নতুন করে অসুস্থ হলে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করছে তারা৷ চাঁদপাড়া ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের বি এম ও এইচ ভিক্টর সাহা বলেন, “খাদ্যে বিষক্রিয়া থেকে এটা হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। একজনকে বারাসাত হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের অবস্থা স্থিতিসীল।”

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment