বয়স কালে পিতা- মাতা কী সন্তানের কাছে মার খাওয়ার যোগ্য?

বয়স কালে পিতা- মাতা কী সন্তানের কাছে মার খাওয়ার যোগ্য?

 

শান্তনু বিশ্বাস, অশোকনগরঃ  প্রায় বৃদ্ধ বাবাকে মারধর করতেন গুনধর পুএ প্রদীপ বিশ্বাস। এমনটাই অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের। পূজোর পর বাজার থেকে সন্দেশ কিনে এনে বছর ৯৪-এর মানিক লাল বিশ্বাস তার স্ত্রীকে খাইয়ে ছিল। তাঁর একটা অপরাধ ছিল স্ত্রী ডায়াবেটিস রোগী ছিলেন। এরপর তার এই অপরাধের জন্য তার গুনধর ছেলে প্রদীপ বিশ্বাস মারধর করেন। এরপরই স্থানীয় এক প্রতিবেশীর সহায়তায় ভাইরাল হয়ে যায় ভিডিও। এর দরুন বুধবার গ্রেফতার করা হয় প্রদীপ বিশ্বাসকে । ২৫ শে অক্টোবর বৃহস্পতিবার ধৃত প্রদীপ বিশ্বাসকে বারাসত জেলা আদালতে হাজির করানো হলে বিচারক তাঁকে শর্ত সাপেক্ষে জামিন দিয়েছেন বলে জানিয়েছে অশোকনগর থানার পুলিশ।

অশোকনগরের ১৭ ওয়ার্ডে বিল্ডিং মোড়ের বাসিন্দা মানিকলাল বিশ্বাস পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছিলেন, তাঁর ছেলে তাঁকে প্রায় মারধর সহ শারীরিক নির্যাতন করেন। তাঁকে যাতে আর নির্যাতিত না হতে হয়, সে ব্যাপারে পুলিশের হস্তক্ষেপ দাবি করে তিনি চিঠিও দিয়েছিলেন। তার আগেই যদিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় ৯৪ বছরের বৃদ্ধ মানিকলালকে মারধরের ভিডিয়ো। এরপর পুলিশ প্রদীপকে গ্রেফতার করে। কিন্তু গ্রেফতার হওয়ার পরের দিন আদালত তাকে শর্ত সাপেক্ষে জামিন দিয়ে দেন। যদিও অভিযোগ বাড়ি ফিরে সে আবার তার বাবা ও মা কে ফের মারধর করে।

[embedyt] https://www.youtube.com/watch?v=X9SvobwyJzo[/embedyt]

এক্ষেত্রে প্রদীপের মেজ দিদি গৌরী সরকার ঘটনার খবর পেয়ে চলে আসেন বাবার কাছে। তিনি বললেন, ‘‘বাবাকে ভাই মেরেছে খবর পেয়ে দৌড়ে আসি। ভাইয়ের ধারণা হয়েছিল, বাবাকে মারধরের খবর আমি সবাইকে জানিয়েছি। বাড়িতে ঢুকতেই ও আমাকে ধাক্কাধাক্কি শুরু করে। আমি যতই বলি, কাউকে কিছু বলিনি, ও কিছুতেই বিশ্বাস করতে চায় না। আমাকে ধাক্কা দিয়ে বাড়ি থেকে বার করে দেওয়ার চেষ্টা করে।’’

গৌরী দেবীর আরো বলেন, তাঁর ভাই প্রদীপ বাবাকে মাঝে মাঝেই মারধর করতেন। প্রতিবেশীরাও বিষয়টি নিয়ে যথেষ্ট ক্ষুব্ধ। গত ২০শে অক্টোবর এক প্রতিবেশী মোবাইলে ভিডিয়ো রেকর্ডিং করেন। ৩মিনিট১৭ সেকেন্ড এর সেখানে দেখা যায়, সাদা পাঞ্জাবি পরা বৃদ্ধের গলা ধরে গালে একটার পর একটা চড় মারছে ছেলে। বলছে, ‘‘কেন মাকে সন্দেশ খেতে দিয়েছো? জানো না, মায়ের মিষ্টি খাওয়া নিষেধ। আমাকে জিজ্ঞেস করোনি কেন?’’

কোন বাবা-মা চায়না বয়েস কালে এসে সন্তানের কাছে মারধর খেতে। কেন বার বার স‍্যোশালমিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে বাবা মায়ের মারধর সহ শারীরিক নিযাতর্নের ভিডিয়ো। বর্তমানে সমাজ নিচে নামছে নাকি মানুষের মনুষ্যত্ব। বয়স কালে পিতা- মাতা কী সন্তানের কাছে মার খাওয়ার যোগ্য? প্রশ্ন থেকে গেল!!

You May Share This
  • 6
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    6
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *