‘চোরকে তাড়িয়ে আমরা ডাকাত এনে বসিয়েছি’ – কটাক্ষ মুকুল রায়ের

‘চোরকে তাড়িয়ে আমরা ডাকাত এনে বসিয়েছি’ – কটাক্ষ মুকুল রায়ের

Spread the love
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares

 

শান্তনু বিশ্বাস, অশোকনগরঃ বুদ্ধ বাবু জ্যোতিবাবু ছিলেন চোর, ওরা বাংলার গনতন্ত্র চুরি করত, আর সেই চোরকে তাড়িয়ে আমার ডাকাত এনে বসিয়েছি দিয়েছি। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের চিত্রটা সকলের মনে আছে। বাংলায় একটি চাকরি হয়নি। বন্ধ কল-কারখানাও খোলেনি। নারীরাও সুরক্ষিত নয়। তাই আসুন সবাই একত্রিত হয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যাভিচারী রাজনীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াই। এমনই ভাবে নরেন্দ্র মোদির হাত শক্ত করার আহ্বান জানালেন বঙ্গীয় রাজনীতির চানক্য মুকুল রায়।

উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগর সেনডাঙার একটি বিদ্যালয়ের মাঠে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের উদ্যোগে এক বিশাল জনসভার আয়জন করা হয়। সেই জনসভায় প্রধান বক্তৃ হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিজেপে নেতা তথা বঙ্গীয় রাজনীতির চানক্য মুকুল রায়। ১৩ই অক্টোবর এই জনসভায় শতাধিক সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষেরা বিজপিতে যোগদান করেন। এই যোগদানের ফলে এই এলাকায় বিজেপির হাত আরো শক্ত হলো বলে দাবী করেন স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বরা। যা আগামী লোকসভা নির্বাচনের তৃণমূলকে পেছনে ফেলে দেবে বলেও দাবী করেছেন তাঁরা। এই জনসভার পাশাপাশি কেন্দ্রের স্বচ্ছ ভারত মিশনের প্রচারের জন্য রাস্তায় ঝাঁড়ু হাতে ঝাঁট দিতেও দেখা যায় মুকুল রায় কে।

[espro-slider id=13142]

এদিন এই জন সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুকুল রায় বলেন যে,” বুদ্ধ, জ্যোতি বাবুরা চোর ছিলো চোর, বাংলার গনতন্ত্র চুরি করছিলো, সেই চোরকে তাড়িয়ে আমরা ডাকাত এনে বসিয়েছি। এর পাশাপাশি তিনি আরো দাবী করেন যে, গত সাত বছরে ঋণের পারিমান তিন গুন বাড়িয়ে দিয়েছে এই সরকার, এই সরকারের আমলে রাজ্যের নারীরা সুরক্ষিত নয়, রাজ্যে সিণ্ডিকেট চলছে, কোন চাকুরি নেই, খোলেনি বন্ধ কল-কারখানাও, বাংলা স্কুল কলেজ গুলো কোথায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে, স্বাস্থ্য কেন্দ্র কেমন অবস্থা, কি উন্নয়ন করছে, এই নানা প্রশ্ন ছুঁড়ে দেয় বর্তমান সরকার তথা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে।

এরপর তিনি বক্তব্যের শেষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যাভিচারী রাজনীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান মুকুল রায়। সেই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাত আরো শক্ত আগামী লোকসভা নির্বাচনের সমস্ত ভোটারদের পদ্ম ফুল চিহ্নে ভোট দেওয়ার অনুরোধও করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.