মাটিয়ায় নাবালিকাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস, ধৃত যুবক

Spread the love
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

অর্ণব মৈত্র, মাটিয়াঃ পুলিশি সূত্রে জানা যায় বসিরহাট ২ নম্বর ব্লকের মাটিয়া থানার সাংবেড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা রহমত মন্ডলের ছেলে শাহাবুল মণ্ডল। শাহাবুল পেশায় একজন দর্জি কর্মী। ১২ই অক্টোবর শুক্রবার রাতে তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে মাটিয়া থানার দ্বারস্থ হয় তাদেরই এক প্রতিবেশী। ওই প্রতিবেশীর নাবালিকা মেয়েকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে। মাটিয়া হাই স্কুলের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী ওই নাবালিকা। তাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে একাধিকবার তার সঙ্গে সহবাস করে বলে শাহাবুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলে ওই নাবালিকা।

জানা যায়, প্রতিবেশী হওয়ার সুবাদে ওই নাবালিকার সঙ্গে পরিচয় হয় শাহাবুলের। প্রতিবেশী যুবকের সঙ্গে সহবাসের ফলে বর্তমানে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে ওই নাবালিকা। লোকলজ্জার ভয়ে নাবালিকা শাহাবুলকে বিয়ের জন্য প্রস্তাব দেয়। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে নাবালিকাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে শাহাবুল। এরপরই বিষয়টা জানাজানি হয় পরিবারের মধ্যে। মেয়েকে বিয়ের জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে সাহাবুলকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার পরও তা অস্বীকার করায় শুক্রবার রাতে শাহাবুলের বিরুদ্ধে মাটিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নাবালিকার বাবা।

নাবালিকার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে এদিন রাতেই ওই যুবককে গ্রেপ্তার করে মাটিয়া থানার পুলিশ। ধৃতকে নিজেদের হেফাজতের আবেদন জানিয়ে ১৩ই অক্টোবর বসিরহাট মহকুমা আদালতে পাঠায় পুলিশ। অভিযুক্তকে চার দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন মহকুমা আদালতের এসিজেএম।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment