বাদুড়িয়ায় প্রশাসনের উদ্যোগে বন্ধ হল অবৈধ বালি খাদান

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

অর্ণব মৈত্র, বাদুড়িয়াঃ বেশ কয়েক বছর ধরে উত্তর চব্বিশ পরগনার বাদুড়িয়ার ইছামতি নদী থেকে চলত অবৈধ ভাবে বালি তোলার কাজ। এই বালি তোলার ফলে নদীর গভীরতা বৃদ্ধি পাওয়ায় নদী বাঁধের ব্যপক হারে ক্ষতি হচ্ছে। প্রশাসনের তৎপরতায় বন্ধ হলো এরকম বেশ কিছু অবৈধ বালি খাদান থেকে বালি তোলার কাজ।

ইছামতি নদী থেকে বালি তোলা রুখতে বহুদিন ধরেই প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানিয়ে এসেছেন গ্রাম বাসিন্দাদের একাংশ। আর প্রশাসনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে দিনের পর দিন চলছে নদী থেকে এই বালি তোলার কাজ। এবার সেই বালি তোলা আটকাতে তৎপর হলো বাদুড়িয়া পুলিশ প্রশাসন, বি এল আরও ও বিডিও।

১২ই অক্টোবর শুক্রবার ইছামতি নদী থেকে বালি তোলা আটকাতে যৌথ অভিযানে নামে প্রশাসন। বাদুড়িয়া বাজিতপুর পঞ্চায়েত সংলগ্ন ফতুল্লাপুর এলাকা ও বাদুড়িয়া পৌরসভার ফরিদ কাটি এলাকায় অভিযান চালায় প্রশাসনিক আধিকারিকরা। উদ্ধার হয় ১০০ টি পাইপ ও একটি বালি তোলার মেশিন। যদিও এর আগেও বেশ কয়েকবার বালি তোলা বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হলেও প্রশাসনের কথার কোন গুরুত্ব দেয়নি ওই অসাধু বালি ব্যবসায়ীরা।

পুলিশি সূত্রে জানা যায়, ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই ওই অসাধু বালি ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। কাউকে ধরা না গেলেও বি এল আর ও এর পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের করা হয় বাদুড়িয়া থানায়। বি এল আর ও এর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে বলেও জানা যায়।

সম্পর্কিত সংবাদ