মিনাখাঁয় গৃহবধূ কে পিটিয়ে খুন

Spread the love
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

 

অর্ণব মৈত্র,মিনাখাঁঃ বাড়ির কাজ কর্ম না করায় গৃহবধূ কে পিটিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠল শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে। পলাতক স্বামী, শ্বশুর ও শ্বাশুড়ি।

জানা যায়, ২০১৬ সালে ভাঙড় থানার উত্তর জাগুলগাছী গ্রামের দিনমজুর সেলিম মোল্লার মেয়ে সালমা গাজীর বিয়ে হয় মিনাখাঁর দক্ষিণ বামনপুকুর গ্রামের মোসলেম গাজীর ছেলে পেশায় দর্জি মিস্ত্রী সাহিদ গাজীর (২৩) র সঙ্গে। প্রায় তিন বছরের সংসারে তাদের দেড় বছরের একটি কন্যা সন্তানও আছে।

অভিযোগ, গত কয়েক মাস আগে স্বামী সাহিদ গাজী তার স্ত্রী সালমা বিবিকে বেধড়ক মারধোর করে। এমনকি তার হাতে গরম খুন্তির ছ্যাঁকাও দেওয়া হয় এমনটাই অভিযোগ সালমা বিবির বাপের বাড়ির। এরপর স্বামীর অত্যাচারে সালমা বিবি উত্তর জাগুলগাছি বাপের বাড়িতে গিয়ে তারা বাবাকে সব ঘটনার কথা খুলে বললে সালমা বিবির বাবা জামাই সাহিদ গাজীকে ডেকে বুঝিয়ে মেয়েকে ফের শ্বশুর বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। কিছুদিন ভালো ভাবে থাকার পর ৮ই অক্টোবর সকালে ওই গৃহবধূকে ফের মারধর করার কথা এক প্রতিবেশি তার বাপের বাড়ির লোকেদের জানালে, তারা এসে মেয়ের নিথর দেহ দেখতে পায়। সালমা বিবির বাবার অভিযোগ, মেয়েকে তার শ্বশুর বাড়ির লোকেরা বেধড়ক মারধর করে ও শ্বাসরোধ করে মেরে ফেলেছে।

এরপর ঘটনার বিবরন জানিয়ে এদিন সালমা বিবির বাপের বাড়ির লোকেরা মিনাখাঁ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তবে থানায় কোন লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি বলে জানিয়েছে মিনাখাঁ থানার পুলিশ। যদিও অপরদিকে ঘটনার পর থেকেই পলাতক সালমার স্বামী সাহিদ গাজী সহ তার পরিবারের লোকেরা। পুলিশি সুত্রে জানা যায়, ৯ই অক্টোবর মৃত দেহ ময়না তদন্তের জন্য বসিরহাট মর্গে পাঠানো হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ