আবারও বেআইনি বাজি কারখানায় বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল সোনারপুর, আহত ১৩ ও মৃত ১

Spread the love
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares

অমিয় দে, সোনারপুরঃ পুজো আর মাত্র হাতে গোনা কয়েকটা দিন, এর মধ্যেই আবারও বেআইনি বাজি কারখানায় বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল সোনারপুর। অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় এক শ্রমিকের। বিধ্বংসী আগুনে পুড়ে খাক হয়ে যায় পার্শ্ববর্তী বাড়িগুলি। আগুন লাগার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌছায় দমকলের ৪টি ইঞ্জিন। ঘণ্টাখানেকের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। গুরুতর জখমরা বর্তমানে বারুইপুর হাসপাতালে চিকিত্সাধীন রয়েছে। তাদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা বেশ আশঙ্কাজনক।

ঘটনাটি ঘটেছে, দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুরে। এলাকায় বেআইনি বাজি কারখানায় এভাবে আগুন লাগার ঘটনায় বিক্ষোভে ফেটে পড়েন ক্ষুদ্ধ বাসিন্দারা। এমনকি পুলিসকে ঘিরে ধরে বিক্ষোভ দেখাতেও শুরু করে দেয় তাঁরা। এলাকা বাসীদের অভিযোগ, সোনারপুর গোবিন্দপুরে ঘনবসতি এলাকাতেই রমরমিয়ে চলছিল বাজি বানানোর কারবার। বেআইনি ভাবে মজুত করা ছিল প্রচুর বাজি ও তার সরঞ্জাম।


রবিবার দুপুরে হঠাৎই সেই কারখানায় আগুন লেগে যায়। কারখানার ভিতরে প্রচুর দাহ্য বস্তু মজুত থাকায় সেই আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে চারপাশে। সেই সময় কারখানার ভিতরে কাজ করছিল ১৩ জন শ্রমিক, তাদের মধ্যে অগ্নিদগ্ধ হয়ে কারখানার ভিতরেই প্রাণ হারান দেবাশিস সর্দার নামে এক শ্রমিক। গুরুতর জখম হন বাকি শ্রমিকরাও।

স্থানীয়রা জোড়ালো অভিযোগ তোলেন, এই কারখানাতেই গত ৩ বছর আগেও ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের সম্মুখীন হয়েছেন তারা। কিন্তু তারপরও টনক নড়েনি প্রশাসনের। কি করে প্রশাসনের নজরে এরিয়ে এটা সম্ভব? উঠছে প্রশ্ন। শেষপর্যন্ত পরিস্থিতি সামাল দিতে লাঠিচার্জ করে পুলিস। আগুন লাগার ঘটনায় আটক করা হয়েছে বাড়ির মালিক তরুণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

সম্পর্কিত সংবাদ