প্রধান শিক্ষকের পদত্যাগের দাবীতে রেল অবরোধ ব্যারাকপুরে

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

অরিন্দম রায় চৌধুরী, ব্যারাকপুরঃ সোমবার সপ্তাহের প্রথম দিনের সকালেই শিয়ালদহ মেন লাইনের ব্যারাকপুর স্টেশনে অবরোধ শুরু করে ব্যারাকপুর গার্লস স্কুলের মর্নিং সেশনের ছাত্রীদের অভিবাবকরা। অভিভাবকদের দাবি গত সপ্তাহে স্কুলেরই এক নাচের শিক্ষকের বিরুদ্ধে নার্সারির এক ছাত্রীকে যৌন হেনস্থার যে অভিযোগে পক্সো আইনে গ্রেফতার হয়েছিল। তারই পরিপ্রেক্ষিতে স্কুলের প্রধান শিক্ষকের পদত্যাগ দাবী করেন তারা।

প্রসঙ্গত গত শনিবার ব্যারাকপুর গার্লস হাই স্কুলের প্রাইমারি বিভাগের নার্সারির এক ছাত্রীকে যৌন হেনস্থা করার অভিযোগে ওই স্কুলেরই এক শিক্ষক সুজয় ধারার বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে। অভিযুক্ত শিক্ষক কে টিটাগড় থানার পুলিশ গ্রেফতার করে। যদিও অভিযুক্ত সুজয় ধারা নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন ও তাকে ফাঁসানো হয়েছে বলেও তিনি দাবি করেন। এরপরই আজ সকালে স্কুলে সকলে আসলেও স্কুলের প্রধান শিক্ষক অভিজিৎ ঘোষ স্কুলে না আসায় অভিভাবকরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। তাদের দাবি এই প্রধান শিক্ষকই মূল কালপ্রিট। অবিলম্বে প্রধান শিক্ষকের অপসারণের দাবি করে স্কুলের সামনে রেল অবরোধ শুরু করেন অভিভাবকরা।


খবর পেয়ে তরিঘরি পুলিশ গিয়ে পৌছায় ঘটনাস্থলে। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে আশ্বাস পেয়ে অবশ্য ঘন্টা খানেকের মধ্যে অবরোধ তুলে নেন অভিভাবকরা। উল্লেখ্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে যে তারা তাদের সমস্ত দাবি নিয়ে ব্যারাকপুর মহকুমা শাসক এবং ডি আইএর সাথে নিশ্চয়ই আলোচনা করবে। 

কিন্তু সপ্তাহের প্রথম দিনেই ঠিক অফিস টাইমে এই রেল অবরোধ হওয়ায়ে স্বাভাবিক ভাবেই অসুবিধার সমুক্ষিন হয়ে রেলের নিত্য অফিস যাত্রিরা।

সম্পর্কিত সংবাদ