কিডনি পাচার চক্রের পর্দাফাঁস!, গ্রেফতার এক মহিলা

কিডনি পাচার চক্রের পর্দাফাঁস!, গ্রেফতার এক মহিলা

 

রাজীব মুখার্জী ও মণি শংকর বিশ্বাস, জাগাছা, হাওড়াঃ একদিকে যেখানে মরণোত্তর অঙ্গদান করে আরেকটি মুমুর্ষ মানুষ কে বাঁচানোর প্রয়াসের চিত্র আমাদের কে গর্বিত করে, ঠিক তার পাশাপাশি কিছু মানুষ তাদের অর্থ রোজগারের পন্থা হিসাবে জীবিত মানুষের শরীরের অঙ্গ বিক্রির ফাঁদ পেতে মানুষকে প্রতারিত করে চলেছে। এই ধরণের ঘটনা আমাদের সমাজে, আমাদের চারপাশে প্রায়শই ঘটে চলেছে। এই কাজ আমাদের মানব সমাজকে কলুষিত করে। এ এক লজ্জা আজ মানুষ সমাজের কাছে। সামান্য কিছু অর্থের লোভে মানুষ আজ কত টা নিচে নেমেছে। আজকের প্রতিবেদন সেরকম একটি ঘটনা কে কেন্দ্র করেই। ৩০শে সেপ্টেম্বর, বিকেলে হাওড়ার জগাছা থেকে এক মহিলাকে গ্রেফতার করল উত্তরাখণ্ড পুলিশ৷ ধৃতকে ট্রানজিট রিমান্ডে সে রাজ্যে নিয়ে যাওয়া হবে বলে পুলিশ সুত্রে খবর।

এই ঘটনা আসলে হেলথ ক্নিনিকের আড়ালে কিডনি পাচার চক্রের! জাগাছা থানার সূত্রের খবর অনুযায়ী, ধৃতের নাম চন্দনা গুড়িয়া। তার আদি বাড়ি হাওড়ার বাগনানে৷ বছর খানেক আগে তিনি জগাছার জিআইপি কলোনিতে বাড়ি ভাড়া নেন, একাই থাকতেন ওখানে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, জগাছায় বাড়ি ভাড়া নেওয়ার সময় নিজেকে নার্স বলে পরিচয় দিয়েছিলেন চন্দনা। বাড়িওয়ালা শম্ভু দাস বলেন, “তার ব্যবহার ও আচার আচরণে কোনো কিছু ছিল না সন্দেহ করার মতো, তাই বাড়ি ভাড়া দিয়ে দি তাকে।” বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকাকালীন বাড়ির কাছে একটি হেলথ ক্নিনিকও খোলেন তিনি এক বছর আগে। স্থানীয় বাসিন্দা বাপন সাহা এ বিষয় জানান “ক্নিনিকটি দিনের বেশিরভাগ সময়েই বন্ধ থাকতো৷ দরজা-জানালাও পর্দা দিয়ে ঢেকে রাখা হতো৷ ফলে ক্নিনিকের ভিতরে কী চলছে, তা টের পাওয়া যেত না।

৩০শে সেপ্টেম্বর, বিকেলে হাওড়া সিটি পুলিশের সঙ্গে যৌথ অভিযান চালিয়ে ভাড়াবাড়ি থেকে চন্দনা গুড়িয়াকে গ্রেফতার করে উত্তরাখণ্ড পুলিশ। উত্তরাখন্ড পুলিশের তদন্তকারী অফিসার জানিয়েছেন, গত বছর হরিদ্বারে দুই ব্যক্তির কিডনি বিক্রি করে দেওয়া হয়৷ তদন্তে নেমে বেশ কয়েক জনকে গ্রেফতার করে উত্তরাখণ্ড পুলিশ। ধৃতদের জেরা করেই জগাছার চন্দনা গুড়িয়ার নাম জানা যায়৷ তাঁকে ধরতে অবশ্য রীতিমতো বেগ পেতে হয় উত্তরাখণ্ড পুলিশকে, এমনটাই দাবি তাদের। শেষ পর্যন্ত হাওড়া সিটি পুলিশের সঙ্গে যোগযোগ করে তারা। সেখান থেকে জাগাছা থানায় যোগাযোগ করা হয়। জাগাছা থানা থেকে জানা যায়, অভিযুক্তকে ট্রানজিট রিমান্ডে উত্তরাখণ্ড নিয়ে গেছেন উত্তরাখণ্ডের তদন্তকারী অফিসারেরা।

You May Share This
  • 19
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    19
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.