বারাকপুরে পুলিশ কর্তার বাড়ির সামনেই বোমা বিস্ফোরন

Spread the love
  • 29
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    29
    Shares

 

রাজীব মুখার্জী , বারাকপুর: আচমকা শব্দে কেপে উঠল ব্যারাকপুরের সেনা ব্যারাকের রাস্তা। খোদ বারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের ডি শি জোন ওয়ানের বাড়ির উল্টো দিকে ঘটলো আজ বোমা বিস্ফোরণ। এই বিস্ফোরণের আঘাতে জখম হয়েছেন দুই ব্যক্তি। যার মধ্যে ব্যারাকপুর পানপাড়া নিবাসী সমীর বৈরাগ্যের অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় তাকে স্থানীয় ডাঃ বি এন বসু হাসপাতাল থেকে কলকাতার আর. জি. কর. হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়ে ও সেই সময় রাস্তা দিয়ে যাওয়া টিটাগড়ের নিবাসী পেশায় ফেরিওয়ালা জগন্নাথ সাউ এর অল্প বিস্তর চোট লাগায় থেকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়। উত্তর ২৪ পরগনার বারাকপুর ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড এলাকার এস. এন. ব্যানার্জী রোডে আজ সকালে এই ঘটনাটি ঘটে।

এখনো অব্দি জানা গেছে এস এন ব্যানার্জী রোডের উপর বারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের আধিকারিক ডি শি জোন ওয়ান ডাঃ কে. কান্নানের অফিস। সেখান থেকে ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে ঠিক উল্টো দিকে রয়েছে একটি ছোট পার্ক যার মাঝে গান্ধীজীর মূর্তি বসানো। প্রতিদিনের মতো আজকে সকালেও বারাকপুর ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের ঐ সাফাই কর্মী পার্ক পরিষ্কার করতে আসে। সেখানে জঞ্জালের মধ্যে রাখা ছিল একটি তাজা বোমাটি আর সাফাই করতে করতে তার কোদালের ঘা পড়ে জঞ্জালে লুকানো ওই শক্তিশালী বোমার উপর। সাথে সাথে প্রচন্ড শব্দে বিস্ফোরণ হয় এস এন ব্যানার্জী রোড সংলগ্ন ওই পার্কের জায়গাতে। বিস্ফোরণের শব্দে প্রথমে কেউ কিছু বুঝতে না পারলেও পরে সকলে ঘটনাটি বুঝতে পারে। স্থানীয় বাসিন্দারা সাথে সাথেই বারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটে খবর দেয় ও তারপরেই পুলিশ এসে তড়িঘড়ি করে জখম দু’জনকে উদ্ধার করে ডাঃ বি. এন. বসু মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

শক্তিশালী ওই বোমার আঘাতে সমীর বৈরগ্যের পায়ে ও চোখের তলায় বোমার কুচি ঢুকে যায়। জখম সাফাই কর্মী সমীর বৈরাগ্যর অবস্থা বর্তমানেও আশঙ্কাজনক রয়েছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

তবে বারাকপুর এস. এন. ব্যানার্জী রোডে ওই পুলিশ অফিসারের অফিসের সামনে কিভাবে এই বোমা এলো তা খতিয়ে দেখছে টিটাগড় থানার পুলিশ। প্রাথমিক ভাবে অনুমান করা হচ্ছে স্থানীয় দুষ্কৃতীরাই ওই বোমা পার্কের মধ্যে লুকিয়ে রেখেছিল। এই বোমার নেপথ্যে আসল রহস্য কি তার তদন্তে নেমেছে টিটাগড় থানার পুলিশ।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment