উৎসবের পরিবেশ বজায় রাখতে নতুন কর্মসংস্কৃতি উৎসবের পরিবেশ এই রাজ্যে

Spread the love
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares

রাজীব মুখার্জী, প্রাণিসম্পদ ভবন, সল্টলেকঃ পরিবেশ দপ্তরের ভার প্রাপ্ত মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর নতুন নির্দেশ অনুযায়ী আগামী দুর্গাপুজো পর্যন্ত পরিবেশ দফতর আর রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের সব দফতর গুলি খোলা থাকবে। কর্ম সংস্কৃতি ফেরানোর এই নির্দেশ বাম আমলের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের “ডু-ইট-নাও” কে মনে করাচ্ছে দুই মন্ত্রকের সাধারণ কর্মচারিদের। মন্ত্রক সূত্রের খবর, নাগরিক পরিষেবার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই নিৰ্দেশ নিয়ে কর্মীদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিচ্ছে।

পুজোর সময় মূলত শব্দ, জঞ্জাল ও অন্যান্য বিষয় সংক্রান্ত দূষণের মোকাবিলা কীভাবে করা হবে তাই নিয়ে সম্প্রতি তিনি তার নিজস্ব দফতর এবং পর্ষদের আধিকারিকদের সঙ্গে জরুরি ও গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করেছিলেন। সেখানেই এই বিষয়টি উঠে আসে ও এই বিষয় সহ আরও অনেক বিষয়ে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এদিন। চলতি মাসের গত শনিবার থেকেই এই নির্দেশ চালু হয়েছে। তাই আগামীকালও দফতর পুরোদিন খোলা থাকছে এমনটাই জানালেন অতিরিক্ত চিফ সেক্রেটারি ইনদেবর পাণ্ডে।

এছাড়াও পর্ষদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দুর্গাপুজোর আর অল্প দিন বাকি তাই পুজোর আগে দফতরের অনেক কাজ থাকে. সেই গুলি দ্রুত শেষ করার প্রয়োজন এই মুহূর্তে আর সেই জন্যেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে এই বছরে. প্রতি বছরের মতো এই বছরেও শব্দ বাজির উপরে করা নজর রাখবে পর্ষদ ও পুলিশ প্রশাসন. নিয়মিত অন্যান্য বছর সীমান্ত রাজ্যের চেকপোস্ট গুলোতে চেকিং চলে তা এবারেও চলবে. শব্দ বাজি যাতে সাধারণ মানুষের যন্ত্রণার কারন না হয় তার জন্য অনেক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলেন পর্ষদের চেয়ারম্যান কল্যাণ রুদ্র এবং তিনি জানান দুই দফতরের সমস্ত কর্মীদের অফিসে হাজির থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে. সমস্ত ছুটি বাতিল করা হয়েছে তাই অন্যদিনের মতো ওই দিনও স্বাভাবিক কাজ হবে.

সম্পর্কিত সংবাদ