সোনারপুর বাইপাসে দুষ্কৃতী তাণ্ডব, টাকা ও গাড়ি লুঠ করে চম্পট দিলো দুষ্কৃতীরা

Spread the love
  • 39
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    39
    Shares

 

অমিয় দে, সোনারপুরঃ রাতে ড্রাইভারকে সাথে নিয়ে রায়দিঘি থেকে পাটুলিতে বাড়ি ফেরার সময় দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হলেন এক ঠিকাদার ও তার গাড়ির চালক। আক্রান্তদের নাম সঞ্জীব রায় ও সেখ সাদ্দাম। অভিযোগ মঙ্গলবার রাতে সোনারপুর বাইপাস দিয়ে বাড়ি ফেরার সময় আচমকা তাদের পথ আটকে গাড়ি থেকে নামিয়ে বেধড়ক মারধোর করে নগদ ৮৫ হাজার টাকা ও তাদের নিজস্ব গাড়ি নিয়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। স্থানীয়রাই রাতে তাদের উদ্ধার করে বাঘাযতীন স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন চিকিৎসার জন্য। বুধবার এ বিষয়ে সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন আক্রান্ত ঠিকাদার সঞ্জীব রায়।

রায়দীঘিতে সরকারী নদীবাঁধ তৈরির কাজের বরাত পেয়েছেন সঞ্জীব রায় নামে ঐ ঠিকাদার। মঙ্গলবার সেখানে কাজ দেখে ও শ্রমিকদের পাওনা মিটিয়ে প্রায় ৮৫ হাজার টাকা নগদ নিজের সাথে নিয়ে গাড়িতে বাড়ি ফিরছিলেন সঞ্জীব বাবু। গাড়িতে তিনি ও তার ড্রাইভার ছিলেন। অভিযোগ, রাত ১১ নাগাদ যখন তাদের গাড়ি রাজপুর মোড় ছাড়িয়ে নরেন্দ্রপুরের দিকে আসছিল, ঠিক তখন একটি টাটা জেস্ট গাড়ি এসে তাদের পথ আটকায়। গাড়ির মধ্যে থেকে জনা পাঁচেক নেমে এসে সঞ্জীব বাবু ও তার ড্রাইভারকে গাড়ি থেকে বের করে রড দিয়ে বেধড়ক মারধোর করেন। ঘটনায় তারা দুজনেই রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় লুটীয়ে পড়লে তাদের ফেলে রেখে নগদ ৮৫ হাজার টাকা ও সঞ্জীব বাবুর গাড়িটি নিয়ে চম্পট দেয় অভিযুক্তরা। গভীর রাতে তাদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে সোনারপুর থানার পুলিশ। যদিও এ বিষয়ে এখনও কাউকে আটক বা গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

সম্পর্কিত সংবাদ