মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার পরও পোস্ট অফিস থেকে টাকা ফেরৎ না পেয়ে তালা বন্ধ করে বিক্ষোভ দেখালো গ্রাহকরা

Share Bengal Today's News
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    9
    Shares

 

শান্তনু বিশ্বাস, দেগঙ্গাঃ উত্তর ২৪ পরগনার দেগঙ্গা থানার অন্তর্গত কলসুর পোস্ট অফিসে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ দেখালো এলাকার গ্রাহকরা। গ্রাহকদের অভিযোগ, কলসুর পোস্ট অফিসে ফিক্সড ডিপোজিট করে ছিলেন এলাকার বেশ কিছু মানুষ। তাদের মধ্যে বেশ কিছু মানুষের ফিক্সড ডিপোজিট নির্ধারিত সময় পেরিয়ে যাওয়ার পর তারা টাকা তুলতে যায় ওই পোস্ট অফিসে। গত কয়েক দিন আগে পোস্ট অফিসে টাকা তুলতে গিয়ে পাশবই আপডুডেট করতেই চক্ষু চড়কগাছ হয়ে যায় ওই সব গ্রাহকদের। তাঁরা যে অঙ্কের টাকা জমা রেখে ছিলো, সেই অঙ্কের টাকা তাদের একাউণ্টে জমাই হয়নি। পোস্ট অফিসের এক গ্রাহক কমল ঘোসাল দাবি করেন, তিনি ৭০০০০ টাকা একাউণ্টে জমা করে ছিলো, কিন্তু তার পাশ বই আপডুডেট করতে দেখা যায় তার একাউণ্টে ৩০০০০ হাজার টাকা জমা আছে।


এমন ঘটনা প্রায় ৪২ জন গ্রাহক দের পাশ বই তে লক্ষ্য করা যায়। এই সমস্যার কথা প্রতারিত গ্রাহকরা বেশ কয়েক জায়গা লিখিত অভিযোগ করে কোন সুরাহ না পাওয়ায়, ৯ই আগস্ট, বৃহস্পতিবার সকালে তারা পোস্ট মাস্টার কে অফিসের ভেতরে আটকে বাইরে থেকে তালা ঝুলিয়ে দেয়। এই ভাবে প্রায় ২ ঘণ্টা বিক্ষোভ চলার পর হাবড়া থেকে দেবপ্রসাদ মজুমদার নামে এক পর্যবেক্ষক ঘটনা স্থলে আসেন। তিনি প্রতারিত গ্রাহকদের প্রতিশ্রুতি দেন যে, আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সমস্থ টাকা ফেরৎ পেয়ে যাবেন এমনটা তিনি লিখে দেবেন যদি তারা গেট খুলে দেয়। প্রতিশ্রুতি পাওয়ার পর বিক্ষোভকারীরা তালা খুলে দেয়। কিন্তু দেবপ্রসাদ মজুমদার ভেতরে ঢুকেই তাঁর প্রতিশ্রুতির কথা অস্বীকার করেন এবং সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, অসম্ভব আমি এমন কথা বলিনি, আপনারা রেকর্ড করে আওয়াজ পালটে দিয়েছেন। এই ঘটনা ঘটার পর গ্রাহকরা প্রশ্ন তুলেছেন, “সরকারি সংস্থায় টাকা রেখে যদি এমনটা হয়, তাহলে কোথায় রাখবো টাকা”।

সম্পর্কিত সংবাদ