ঋণগ্রস্ত হয়ে পরায় আত্মঘাতী টোটো চালক

ঋণগ্রস্ত হয়ে পরায় আত্মঘাতী টোটো চালক

শান্তনু বিস্বাস, বসিরহাটঃ নিজের অসুখের জন্য এলাকা থেকে প্রচুর টাকা ঋণ নিয়ে ছিলো বসিরহাটের ইলেকট্রিক অফিস এলাকার বাসিন্দা সমীর বিশ্বাস ওরফে লালু। সেই ঋণ শোধ না দিতে পেরে ট্রেণের সামনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিল এই অসুস্থ টোটো চালক। সমীর বিশ্বাস পেশায় টোটো চালক। ৩০শে জুলাই, সোমবার দুপুর সাড়ে ১২ টা নাগাদ আপ হাসনাবাদ লোকাল ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দেন তিনি। বসিরহাটের ভ্যাবলা সংলগ্ন প্রাথমিক স্কুলের কাছে চলন্ত ট্রেনে ঝাঁপ দিতে দেখে স্থানীয়রা। ট্রেনের ধাক্কায় লাইন থেকে বেশ কিছুটা দুরে ছিটকে পড়ে ওই ব্যক্তি। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয়রা গুরুতর জখম অবস্থায় ওই ব্যক্তিকে নিয়ে যায় বসিরহাট জেলা হাসপাতালে। হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে মৃত বলে ঘোষনা করে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা।

ওই ব্যক্তির আত্মহত্যার বিষয়ে প্রতিবেশীদের থেকে জানা গিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরে হৃদরোগে ও পেটের টিউমার নিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। চিকিৎসার খরচ যোগাতে পরিচিত মহল থেকে ও স্ত্রীর স্বনির্ভর গোষ্ঠী থেকেও ঋণ নিতে হয় তাকে। এই ঋণের টাকার সূদ দিনে দিনে বেড়েই চলছিলো। একদিকে ঋণের টাকা শোধ দেওয়া ও অন্যদিকে চিকিৎসা খরচ জোগানো, দুটোর চাপে পড়ে বেশ কিছুদিন অবসাদগ্রস্ত অবস্থায় দিন কাটাচ্ছিলেন এই টোটো চালক। আর সেই কারণেই ট্রেনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন বলে অনুমান প্রতিবেশীদের। এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে আসে ওই ব্যক্তির পরিবারে। ব্যক্তিটির মৃত দেহ ময়নাতদন্তের জন্য বসিরহাট জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানায় বসিরহাট জিআরপির পক্ষ থেকে।

You May Share This
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *