বনভূমি ধ্বংস, বাংলাদেশে পাহাড়ের অবস্থা সংকটাপন্নঃ বনমন্ত্রী

Spread the love
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

মিজান রহমান, ঢাকাঃ রোহিঙ্গাদের কারণে কক্সবাজারের পাঁচ হাজার একর বনভূমি ধ্বংস করায় পাহাড়ের অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছেন পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। অবৈধ ভাবে বসবাসকারীদের উচ্ছেদ না করলে পাহাড় ধস ঠেকানো সম্ভব নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি। ২৫শে জুলাই, বুধবার সকালে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী আরও বলেন, পাহাড় কাটা বন্ধ ও পরিবেশ দূষণ রোধে জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কক্সবাজারে রোহিঙ্গারা রয়েছেন। সেখানে প্রায় পাঁচ হাজার একর বন নষ্ট হয়েছে। পাহাড় ধসে মানুষ নিহত হওয়ার কারণ ২টি, গাছ কাটা এবং অবৈধ স্থাপনা।

এদিকে, কক্সবাজারের অবস্থা আসলে সংকটাপন্ন। পরিবেশমন্ত্রী বলেন, পাহাড় কাটা, বনের জমি লিজ নেওয়া, বনভূমির অবৈধ দখল, নদী দখল, নদী দূষণ নিয়ে ডিসিদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। তারা কীভাবে এগুলোর সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পারেন সেটা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “ডিসিরা কক্সবাজারের কথা বলেছেন, যেখানে বনের যথেষ্ট ক্ষতি হয়েছে। বনের প্রায় পাঁচ হাজার একরের মতো জমির ক্ষতি হয়েছে। সেটা আবার পুনঃবনায়ন করার ব্যাপারে আমরা কী পদক্ষেপ নিচ্ছি, সেগুলো নিয়ে কথা হয়েছে”। মন্ত্রী বলেন আরও, পাঁচ হাজার একর বন ধ্বংস হওয়ায় সেখানের পরিবেশ সংকটাপন্ন। ডিসিরা এ জন্য পুনরায় বনায়নের কথা বলেছেন। বর্ষার আরও দুই মাস আছে, এ ব্যাপারে আমাদের সাবধান থাকতে হবে। সেই বিষয়ে ডিসি সাহেব দের বলা হয়েছে। পাহাড়ে উচ্ছেদ কার্যক্রম অনর্গল চলছে। আবার তারা এসে বসছে। আমাদের যে অবস্থা এর মধ্যে আমাদের এগুলো ঠিক করে নিতে হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ