ফের যৌন হেনস্থার শিকার মহিলা সাংবাদিক, বিশ্বকাপের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

বিশ্বকাপের লাইভ কভারেজ চলাকালীন এক মহিলা সাংবাদিককে যৌন হেনস্থা করায় রাশিয়ায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। প্রশ্ন উঠছে মহিলা সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিয়ে এবং তা সার্বিক ভাবে বিশ্বকাপের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে দাঁড় করাচ্ছে প্রশ্নের মুখে।

ঘটনাটি ঘটে সারানস্ক শহরে। জুলিয়েথ গঞ্জালেজ থেরান নামে কলম্বিয়ার এক মহিলা সাংবাদিক সরাসরি বিশ্বকাপের সম্প্রচার করছিলেন। তিনি কাজ করছিলেন এক জার্মান টিভির স্প্যানিশ নিউজ চ্যানেলের হয়ে। কথা বলার সময়ই হঠাৎই ফ্রেমে ঢুকে আসেন এক বড়সড় চেহারার ব্যক্তি। এরপর ওই মহিলা সাংবাদিককে শ্লীলতাহানি করেন এবং তার গালে চুম্বনও করেন। তারপর হাসিমুখে বেরিয়ে যান।

তবে জুলিয়েথ ওই পরিস্থিতিতেও পেশাদারি কর্তব্য পালন করেন। জার্মান টিভির তরফে পরে ইনস্টাগ্রামে এই ঘটনার ভিডিয়ো শেয়ার করা হয়েছে। তারা এটাকে ‘যৌন আক্রমণ’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে। এমনকি জুলিয়েথও পরে এই ঘটনার ভিডিও তার ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেন এবং বলেন, “রেস্টপেক্ট করুন। এমন আচরণ মোটেই কাম্য নয়। আমরা সবাই পেশাদার, সমান মূল্যবান। ফুটবল থেকে আনন্দ আমিও পাই। তবে কতটা আনন্দ করা যায়, তার সীমা জানতে হবে। তা যেন মাত্রাছাড়া হয়ে হেনস্থা না হয়ে ওঠে।”

এছাড়া তিনি আরও বলেন, “সম্প্রচারের জন্য দু’ঘন্টা ধরে আমি ওখানে প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। তখন কোনও বাধা পাইনি। আমরা যখন লাইভ করছিলাম, তখনই এই ব্যক্তি পরিস্থিতির সুযোগ নেন। কিন্তু, পরে আমি ওখানে খুঁজেও তাঁকে দেখতে পাইনি।”

প্রসঙ্গগত অনেক সময় মহিলা সাংবাদিকরা এমন বিষয় সামনে আনেন না তবে বিগত কয়েক বছরে মহিলা সাংবাদিকদের উপর দিন দিন হেনস্থার মাত্রা বেড়ে গিয়েছে। আর এদিনের এই ঘটনা দিনের আলোয় সরাসরি সম্প্রচার চলাকালীন হয় ফলে এদিনের এই ঘটনা বিশ্বকাপের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে প্রশ্নের মুখে ঠেলে দিয়েছে।

সম্পর্কিত সংবাদ

Leave a Comment