অল ইন্ডিয়া কনফেডারেশন গুডস ভেহিকেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশানের ডাকে সারা ভারতে অনিদিষ্ট কালের জন্য ট্রাক ধর্মঘটের ডাকে প্রভাব পড়ল না এশিয়ার বৃহত্তম স্থলবন্দর পেট্রাপোলে

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

জয় চক্রবর্তী, পেট্রাপোলঃ সব দ্রব্যের উপর GST থাকলেও পেট্রাপন্যের ওপর GST কেন বসানো হবেনা? পেট্রোলিয়াম সহ একাধিক পেট্রাপন্যের উপর GST বসানোর দাবীতে “অল ইন্ডিয়া কনফেডারেশন গুডস ভেহিকেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন” সারা ভারত অনিদিষ্ট কালের জন্য ট্রাক ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সুভাষচন্দ্র বোস বলেন, জ্বালানির দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে দেশজুড়ে ১৮ জুন থেকে লাগাতার ট্রাক ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে অল ইন্ডিয়া কনফেডারেশন অব গুডস ভেহিকেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন। সর্বভারতীয় আন্দোলনের অঙ্গ হিসেবে এ রাজ্যেও ১৮ জুন থেকে লাগাতার ট্রাক ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছিল। সেই কর্মসূচি বহাল থাকছে। সর্বভারতীয় ইস্যুর সঙ্গে রাজ্যস্তরেও ওভারলোডিং, পুলিসি জুলুম বন্ধের মতো ইস্যু রয়েছে।

এইক্ষেত্রে ঈদ উপলক্ষে চার দিন ছুটি শেষে পেট্রাপোল-বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে আমদানি-রফতানি বাণিজ্য শুরু হয়েছে। বিভিন্ন দাবিতে ট্রাক মালিকরা আজ (সোমবার) থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ট্রাক ধর্মঘটের যে ডাক দিয়েছেন, পেট্রাপোল স্থলবন্দর এলাকায় তার কোনো প্রভাব পড়েনি। এদিন স্বাভাবিকভাবেই দু’দেশের মধ্যে পণ্যবাহী ট্রাক যাতায়াত করেছে।

প্রসঙ্গত ঈদের আগে বেনাপোল সি অ্যান্ড এফ এজেন্টস স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুহাম্মদ মুজিবর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ নাসির উদ্দিন যৌথভাবে পেট্রাপোল সি অ্যান্ড এফ-এর সেক্রেটারি কার্ত্তিক চক্রবর্তীকে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ১৩, ১৫, ১৬, ১৭ জুন সমস্ত আমদানি-রফতানি বন্ধ থাকার কথা জানিয়েছিলেন।

বন্দর সূত্রে জানা যায় ঈদের কারনে বাংলাদেশে চারদিন ছুটি ছিল সে কারনে প্রচুর ট্রাক পেট্রাপোল বন্দরে দাড়িয়ে আছে, তার পরিমান প্রায় হাজার খানেক হবে৷ বনগাঁ পৌর পার্কিং এ প্রায় দুই হাজার ট্রাক দাড়িয়ে আছে৷ দৈনিক তিনশ থেকে চারশ ট্রাক বাংলাদেশে যায়, ফলে লাগাতর চার-পাঁচ দিন যদি পেট্রাপোলে কোন ট্রাক না আসে তাহলে পরবর্তী সময় কিছু প্রভাব দেখা যেতে পারে। ট্রাকচালক ও ক্লিয়ারিং এজেন্টদের পক্ষ থেকে জানানো হয় পেট্রাপোল বন্দরে আমদানি রপ্তানি স্বাভাবিক।

সম্পর্কিত সংবাদ