জাল ড্রাইভিং লাইসেন্স তৈরির কারখানার হদিশ, ধৃত ১

  জয় চক্রবর্তী, বনগাঁঃ জাল ড্রাইভিং লাইসেন্স তৈরির কারখানার হদিশ পেল বনগাঁ থানার পুলিশ। শনিবার উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ থানা ও পেট্রাপোল থানা সীমান্তর বিএস ক্যাম্পের মোড় থেকে, জাল ড্রাইভিং লাইসেন্স সহ গ্রেফতার করা হয় আশিষ ঘোষ নামে এক যুবককে। পুলিশ সূত্রের খবর, শনিবার রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বনগাঁ থানার পুলিশ হানা দেয় উদ্ধার হয় ১০০ বেশি জাল ড্রাইভিং লাইসেন্স। গ্রেফতার করা হয় ওই কারখানার মালিক আশিষ ঘোষ নামে এক ব্যাক্তিকে। পুলিশি জেরায় আশিষ স্বীকার করে সে বাড়িতে বসে কম্পিউটারের মাধ্যমে এই জাল লাইসেন্স গুলো তৈরি করে। এই জাল লাইসেন্স বাজারে বিক্রি হয় এক থেকে দেড় হাজার টাকায়। পুলিশের অনুমান এই চক্রের সঙ্গে আরও অনেকেই জড়িয়ে আছে। ধৃত অশীষ কে ৫ই আগস্ট, রবিবার বনগাঁ আদালতে পাঠানো হয়। গোয়েন্দা সূত্রের খবর এই জাল লাইসেন্স দেখিয়ে ট্রাক চালক পরিচয় দিয়ে দুষ্কৃতীরা অবাধে দীর্ঘদিন ধরে বাংলদেশ থেকে ভারতে ঢুকে পড়ছে৷

ফের ডেঙ্গুর জেরে মৃত্যুর কলে ধলে পড়লো একটি তরতাজা প্রান

শান্তনু বিশ্বাস, বাদুরিয়াঃ গত বছর ডেঙ্গুতে মৃত্যের সংখ্য ছিলো প্রায় শতাধিক। তার মোকাবিলার চেষ্টা কম করেনি রাজ্য সরকার। তা সত্ত্বেও সব চেষ্টার মাঝেও হার মানতে হয়েছিল অনেক কে। যতই দিন যাচ্ছিল আক্রান্ত সংখ্যা ততই যেন বাড়ছিল। হাসাপাতাল, নার্সিংহোম এমন কি পাড়ার হাতুড়ে ডাক্তাদের কাছে ভীড় ছিলো চোখে পড়ার মতো। হাসাপাতালের বাইরে অস্থায়ী ক্যাম্প হয়েছিল আবার কোথাও শ্বাস্থ্য শিবির খুলতে হয়েছিল রাজ্য সরকার কে। তবে ধীরে ধীরে বর্ষা কমে যাওয়ায় পরিস্থিতি আস্তে আস্তে স্বাভাবিক হয়ে গেলেও মৃত পরিবারের সদস্য রা আজও মৃতদের কথা ভূলতে পারেনি। উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়া মারাকপুর সহ…