অবশেষে দাউদের হদিশ দিল সঙ্গী ফারুক টাকলা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডে:

বিগত সপ্তাহে দিল্লি বিমানবন্দর থেকে আটক করা হয় বিখ্যাত ডন দাউদ ঘনিষ্ঠ ফারুক টাকলাকে। এরপর ডি কোম্পানি প্রধানের ঘনিষ্ঠ সহযোগী ফারুক টাকলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই বেরিয়ে আসে দাউদ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

সুত্রের খবর, করাচিতে দাউদের বাড়ি, তার নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ব্যবসা সংক্রান্ত বহু তথ্য উগরে দিয়েছে টাকলা। এমনকি তদন্তকারী অফিসারদের ফারুক জানিয়েছে, করাচির পশ ক্লিফটন এলাকায় রয়েছে দাউদের বিলাসবহুল বাংলো। পাকিস্তানে কোনও বিদেশি ভিভিআইপি এলে প্রতিবারই দাউদকে কোনও ‘নিরাপদ’ জায়গায় লুকিয়ে ফেলে পাক প্রশাসন।

এছাড়া আরও বলেন, ওই নিরাপদ জায়গাটির নাম ‘আন্ডা গ্রুপ অব আইল্যান্ড’। দাউদের স্ত্রী ও দাউদ ছাড়া ওই জায়গায় কাউকে ঢুকতে দেওয়া হয় না। ‘ভাই’য়ের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করে পাক রেঞ্জার্স। এছাড়া দাউদ কোথাও গেলে তার ব্যবস্থা করে পাকিস্তান কোস্ট গার্ড। তাছাড়া কোন বিশেষ কাজে দাউদকে আমিরশাহি ‌যেতে হলে তারও ব্যবস্থা করে পাক কোস্ট গার্ড। মাত্র ৬ ঘণ্টায় দাউদকে সেখানে পৌঁছে দিতে পারে তারা। এমনটাই দাবি করেন টাকলা। কেননা সে নিজেই একবার জলপথে আমিরশাহিতে ‌যাওয়া দাউদকে ‘রিসিভ’ করেছিল। অপরদিকে ২০০৫-০৬ সালে ছোটা রাজনের লোকজন পাকিস্তানে দাউদকে মারার চেষ্টা করেছিল। শুধু তাই নয়, পাকিস্তানের মাফিয়া গ্রুপগুলিও দাউদকে খুন করার চেষ্টা করে। ফলে তার জন্য কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়।

প্রসঙ্গগত, দাউদের এই সঙ্গী থাকতো দুবাইয়ে। পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে সে সেখানে ট্যাক্সি চালাত। দুবাইয়ে তার ২টি ছেলেও রয়েছে। একজন ইতিমধ্যেই পোস্ট গ্রাজুয়েশন পাস করেছে। অন্যজন গ্রাজুয়েশন করছে। বিদেশে থাকলেও তার মন পড়ে থাকে দেশে। এমনটাই জানিয়েছে টাকলা। কারণ দেশে তার ভাইয়ের কাছে থাকে তার অসুস্থ মা। আর তাই এখানেই সে মরতে চায় বলেও জানায়।

সম্পর্কিত সংবাদ