সর্ব ভারতীয় মতুয়া মহাসংঘের ডাকে রেল অবরোধ হল ঠাকুরনগর, ব্যারাকপুর সহ উত্তর ২৪ পরগনার বিভিন্ন স্টেশনে

Spread the love
  • 17
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    17
    Shares

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঠাকুরনগর ও বারাকপুরঃ  ‘‘বাংলাদেশিদের ঘাড়ধাক্কা দিয়ে বাংলাছাড়া করবো’’ দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের প্রতিবাদে বুধবার উত্তর ২৪ পরগণার ঠাকুরনগর ঠাকুর বাড়ির সামনেই ঠাকুরনগর স্টেশনে, সকাল ৯টা থেকে এক ঘণ্টা বনগাঁ-শিয়ালদা শাখার রেল অবরোধ করেন মতুয়া ভক্তরা। বিজেপির রাজ্যে সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিতর্কিত মন্তব্যের প্রতিবাদে সরব মতুয়াসঙ্ঘের বড় মা বীণাপাণি দেবী। এদিন সকাল থেকে কয়েক হাজার মতুয়া ভক্ত ভিড় করে ঠাকুর বাড়িতে। ভক্তদের হাতে ডাঙ্কা-কাঁসি-শিঙা। কারও হাতে মতুয়াদের সাদা-লাল নিশান। সাথে সাথে মুখে শুধু হরিবোল। ট্রেন লাইনের উপর বসে অবরোধ করে তারা। এর ফলে সমস্যায় পড়েন নিত্যযাত্রীরা। এদিন জেলা শাসকের কাছে একটি স্মারকলিপি জমা দেয় মতুয়া মহাসংঘের সদস্যারা। মতুয়া সংঘের অন্যতম সদস্য অভিজিৎ বিশ্বাস বলেন, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ারও দাবি জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দ্বারস্থ হবেন মতুয়া মহাসংঘের সদস্যরা৷ এ ছাড়াও তিনি আরও বলেন, সোমবার আসামে চূড়ান্ত নাগরিকপঞ্জি প্রকাশিত হয়৷ ওই তালিকা থেকে বাদ গিয়েছে প্রায় ৪০ লক্ষ নাগরিকের নাম। এরই মাঝে আসাম ইস্যুতে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘বিজেপি ক্ষমতায় এলে অসমের মতো বাংলাতেও একই ভাবে নাগরিকপঞ্জি তৈরি হবে৷ বাংলাদেশিদের ঘাড়ধাক্কা দিয়ে বাংলাছাড়া করবো৷ এই কাজে যারা বিরোধিতা করবে,তাঁদেরও ঘাড় ধাক্কা দিয়ে তাড়িয়ে দেওয়া হবে৷’’ এতে মতুয়া ভক্ত সহ সাধারণ মানুষ নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে বলে মনে করেন।


এছাড়াও ব্যারাকপুর, পলতা সহ উত্তর ২৪ পরগনার আরও বিভিন্ন স্টেশনে সর্ব ভারতীয় মতুয়া মহাসংঘের ডাকে রেল অবরোধ করা হয়। যার ফলে আঁখেরে সকাল বেলা অফিস টাইমে এই রেল অবরোধের সরুন নিত্য যাত্রীদের প্রচুর ভোগান্তি হয়।

সম্পর্কিত সংবাদ