অবৈধ সম্পর্কের জেরে খুন!

Spread the love
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    9
    Shares

শান্তনু বিশ্বাস, বসিরহাট: বারাসাতের মনুয়া কাণ্ডের ছায়া এবার মাটিয়া তে। অবৈধ সম্পর্কের কথা স্বামী জেনে যাওয়ায়, প্রেমিক দিয়ে স্বামী কে খুন স্ত্রীর। এমনটাই অভিযোগ প্রতিবেশীদের। জানাগিয়েছে, মৃতের নাম মহম্মদ আলি, উত্তর ২৪ পরগনার মাটিয়া থানার ঘোড়ারাস এলাকার বাসিন্দা। ২৮শে জুলাই, শনিবার সকালে তার বাড়ি থেকে কিছু টা দূরে জমা জলের মাঠে সাইকেল চাপা একটি মৃত দেহ দেখতে পায় স্থানীয়রা। মাটিয়া থানায় খবর দেয় তারা। খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে এসে মহম্মদ আলির মৃত দেহ উদ্ধার করে পুলিস।

স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল রাতে খাওয়া দাওয়ার পর বাবা মা কে এক সঙ্গে শুয়ে পড়তে দেখে ছোট ছেলে সাহিদ। সকালে উঠে প্রতিদিনের মতো বাবা কে আর দেখতে পায়নি বলে জানায় সাহিদ। মহম্মদ আলির স্ত্রীর ফরিদা বিবি জানান, রাতে দুই ব্যক্তি বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়, তারপর আর ফেরেনি, সকালে প্রতিবেশীরা মৃতদেহ দেখতে পেয়ে খবর দেয়। রাতে কে বা কারা তাকে ডেকে নিয়ে যায় সে ব্যাপারে কিছুই বলতে পারেনি ফরিদা বিবি। পাড়ার মাঠ থেকে ওই যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার হলেও তার ঘর থেকে রক্তের চিহ্ন দেখে গিয়েছে বলে দাবী পরিবেশবীদের। প্রতিবেশীদের আরও দাবী যে, ওই গৃহবধূ কে বেশ কয়েক দিন ধরে কিছু যুবকের সঙ্গে দেখা যায়। তাদের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলে ওই গৃহবধূ। সেই সম্পর্কের কথা স্বামী জেনে যাওয়ায় তাকে এই ভাবে খুন করিয়েছে ফরিদা বিবি।

এব্যাপারে প্রতিবেশীরা বলেন, যদি স্বামী কে রাতে কেউ ডেকে নিয়ে যায় তাহলে গভীর রাতে বা সকাল হওয়ার পর স্বামীর কেন কোন খোঁজ করেনি স্ত্রী। তাকে যদি বাইরে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন করে তাহলে ঘরে কেন রক্তের দাগ মিলবে? তবে এই বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের না হলেও স্ত্রী ফরিদা বিবি কে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে মাটিয়া থানার পুলিশ। ময়না তদন্তের জন্য ওই যুবকের মৃতদেহ বসিরহাট জেলা হাসপাতালে পাঠায় পুলিস। ময়না তদন্তের পর খুনের কারন জানা জাবে বলে জানায় পুলিস।

সম্পর্কিত সংবাদ