ব্যাবসায়ী কে অপহরন করে মুক্তিপণের দাবী, তদন্তে নেমে উদ্ধার ব্যাবসায়ী, গ্রেপ্তার দুই গাঁজা পাচারকারি

Spread the love
  • 38
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    38
    Shares

শান্তনু বিশ্বাস, হাবড়াঃ এ যেন কেঁচো খুরতে কেউটে বেরনোর ঘটনা, ১০রা জুলাই, মঙ্গলবার উওর ২৪ পরগনার হাবড়া থানার হাবড়া পৌরসভার ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের হাড়িয়া পদ্মাপল্লী এলাকার বাসিন্দা সুব্রত মজুমদারের পরিবার হাবড়া থানায় অভিযোগ জানায় সুব্রতবাবুকে অপহরন করে নিয়ে যাওয়ার কথা। এবং একটি ফোন থেকে বারংবার ফোন করে ১৮ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবী করছে। সেই মর্মে লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়। মুক্তিপণের সংখ্যা শুনে পুলিশের একটু সন্দেহ দানা বাধে, কারন সুব্রত বাবু ছোট খাটো মুখোরোচক খাবারের ব্যাবসা করেন। তার কাছে কেন এত টাকা চাইবে। ফোনের নাম্বারের সূত্র ধরে তদন্তে নামে হাবড়া থানা। ফোনের কল লিষ্ট ঘেটে দেখা যায় একাধিক বার সুব্রত বাবুর সাথে ওই নাম্বারে কথা হয়েছে। সেই মত ফোনের টাওয়ারের লোকেশন ট্র্যাক করে স্বরুপনগর থানার অন্তর্ত গত আমুদিয়া এলাকা থেকে সুব্রত মজুমদার কে উদ্ধার করে পুলিশ। এবং দুই অপহরন কারি “আল মামুন সদ্দার ও অনিন্দ বিশ্বাস” কে গ্রেপ্তার করে।

দুই অভিযুক্তর কাছ থেকে পুলিশ জিঙ্গাসাবাদ করে জানতে পারে, এই দুজন ওড়িশা থেকে গাঁজা এনে সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে পাচার করতো। সেই কাজে সুব্রত মজুমদারের অশোকনগর থানার এজি কলোনি এলাকায় একটি গোডাউন ছিল, সেটি ভাড়া নিয়ে গাঁজা রাখতো এই দুইজন। এই নিয়ে তাদের ভেতর অশান্তি হওয়াতে তাকে তুলে নিয়ে যায় এই ধৃতরা। পরিবার তাই অপহরনের গল্প ফাঁদে। ধৃত দুজন কে আজ বারাসাত আদালতে পাঠানো হয়েছে, ঘটনা এবং গাঁজা ব্যবসায় আর কারা কারা যুক্ত আছে জানার জন্য ১৪ দিনের পুলিশ হেপাজত চাওয়া হয়েছে। ঘটনার তদন্তে শুরু করছে হাবড়া থানার পুলিশ।

সম্পর্কিত সংবাদ