আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে দেহরাদুন থেকে দিন শুরু করলেন নরেন্দ্র মোদী

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ওয়েবডেস্ক, বেঙ্গল টুডেঃ

২১শে জুন এই দিনটি পালিত হয় আন্তর্জাতিক যোগ দিবস নামে। এই দিনটিকে যোগ দিবস বা বিশ্ব যোগ দিবসও বলা হয়। এই ‘যোগা’ শব্দটি সংস্কৃতের ‘যোজা’ শব্দটি থেকে এসেছে। কারন যোগ হল প্রাচীন ভারতে উদ্ভূত এক বিশেষ ধরনের শারীরিক ও মানসিক ব্যায়াম এবং আধ্যাত্মিক অনুশীলন প্রথা। এর উদ্দেশ্যো মানুষের শারীরিক ও মানসিক সুস্থতাবিধান। এই প্রথা ভারতে আজও প্রচলিত আছে। ২০১৪ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রসংঘে ভাষণ দেওয়ার সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২১ জুন তারিখটিকে আন্তর্জাতিক ‘যোগ দিবস’ বলে ঘোষণা করার প্রস্তাব দেন। সেই বছরই ১১ ই ডিসেম্বর রাষ্ট্রসংঘ সাধারণ পরিষদ ২১ জুন তারিখটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস বলে ঘোষণা করেন। আর তারপর থেকে এই দিনটি বিশ্ববাসী যোগা দিবস হিসাবে পালন করে আসছেন।

২০১৪ সাল থেকে প্রত্যেক বছরের ন্যায় এই বছরও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যোগার মাধ্যমে দিনটির শুভারম্ভ করেন। এদিন দেহরাদুনের ফরেস্ট রিসার্চ ইন্সটিটিউটে গোটা বিশ্ববাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে দিন শুরু করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলে, বর্তমানে কেবলমাত্র দেরাদুনই নয় বরং ডাবলিন, সাংহাই থেকে শিকাগো, জাকার্তা থেকে জোহানেসবার্গ। সব জায়গায়ই বর্তমানে যোগ ব্যায়ামের জয়জয়কার।


নরেন্দ্র মোদী মনে করেন, বর্তমানে যুগের ব্যস্ততার মধ্যে একজন মানুষ যোগ ব্যায়ামের মাধ্যমে তাঁর মানসিক, শারীরিক ও হৃদয়ের মেলবন্ধন ঘটাতে পারেন। পেতে পারেন এক অদ্ভূত শান্তির অনুভূতি। এদিন অন্ধ্রপ্রদেশে ভাইস অ্যাডমিরাল করমবীর সিংহ, ইস্টার্ন ন্যাভাল কম্যান্ডের ফ্ল্যাগ অফিসার কম্যান্ডিং ইন চিফ এবং নৌ বাহিনীর অন্যান্য সদস্যরা বিশাখাপত্তনমে যোগ ব্যায়াম করে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালন করলেন। অপরদিকে রাজস্থানের কোটায় বাবা রামদেব, আচার্য বালাকৃষ্ণ এবং মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধারা রাজেকেও যোগ ব্যায়াম করতে দেখা যায়।

সম্পর্কিত সংবাদ